Abu Monsur

Members
  • Content count

    134
  • Joined

  • Last visited

  • Days Won

    4

Reputation Activity

  1. Mhafiz™ liked a post in a topic by Abu Monsur in MACD মুভিং এভারেজ ডাইভারজন্স অ্যান্ড কনভারজন্স   
    ''মার্কেট ট্রেন্ড সনাক্ত করার জন্য এই ইনডিকেটরটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।''
     
    হাফিজ ভাই ,আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।
    এ ক্ষেত্রে এটির সাথে ADX ইনডিকেটরটির কী সম্পর্ক আছে যদি একটু বলতেন ?
  2. togor23 liked a post in a topic by Abu Monsur in Review Broker   
    আপনার উপর শান্তি বর্ষিত হোক।
    আমি ১০ টার উপরে ফরেক্স ব্রোকারে ট্রেড করার প্রাকটিক্যাল অভিজ্ঞতা থেকে darwinex কে অন্যতম ভাল ,লাভজনক ও অনন্য হিসেবে পেয়েছি  ,অনন্য এ জন্য যে এটির এমন কিছু সৃজনশীল ফিচারস আছে যা অন্য কোন ব্রোকার -এ নেই। আর এটি FCA (UK) regulation দিয়ে নিয়ন্ত্রিত হওয়ায় নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কারণ ০%. আপনি জানেন যে  FCA (UK) regulation সব চেয়ে ভাল।
    অবশেষে এটির অনন্যতা টেস্ট করতে একটি ফ্রি একাউন্ট খুলতে আমি আপনাকে আন্তরিকভাবে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি -
     
    Click to Open an account
  3. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in প্রফেশনাল কিছু ট্রেডিং কৌট – জানলে এগিয়ে যাবেন, না জানলে হয়ত অনেক কিছুই হারাবেন !   
    বিশ্বজুড়ে ফলপ্রস এবং নন্দিত বিভিন্ন পেশার মধ্যে ফরেক্স ট্রেডিং অন্যতম। কিন্তু এটা হতে পারে সবচেয়ে কঠিন এবং হতাশাবেঞ্জক ব্যবসা যদি আপনি সঠিকভাবে করতে না পারেন। ভালো ট্রেডের জন্য স্টেটিজিকেল, এনালিটিকেল এবং সেলফ কন্ট্রোল কিছু বিষয় লুকিয়ে থাকে সব সময়। কোন ট্রেডারই চালিকা শক্তি কখনো এক রকম থাকে না যা ট্রেডার টু ট্রেডার এবং টাইম টু টাইম ভিন্ন রকম হবে এটাই একজন মানুষের স্বাভাবিক কথন; আর এই রকম ভারসাম্য হীনতার কারনে কখনো  কখনো ট্রেডের প্রতি মনোযোগ কিংবা দৃষ্টি ক্ষীণ হয় লস হয় ট্রেডিং এ। তখন প্রয়োজন হয় কিছু আশার বানী এককথায় দরকার হয় নতুন স্টেমিনা। হাঁ আজ শেয়ার করছি এমন কিছু প্রফেশনাল ট্রেডার বেক্তির এমন কথা কৌট, উক্তি যা সত্যি আপানকে আপনার ট্রেডিং এ নতুন প্রান ফিরিয়ে দিতে পারে। এবং তৈরি করতে পারে আগের চেয়ে অনেক উদ্দামি এবং সফল ট্রেডার।
     
    হাঁ, Peter Lynch এর উক্তিটি সবচেয়ে সবার আগে গুরুত্তপুর্ন মনে করছি , কারন এটি আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে পৃথিবীর যত বড় ট্রেডারই হউক না কেন যার সব গুলো ট্রেড কখনো পজেটিভ হয় না। বরং ৬০% সফল ট্রেডই হল পজেটিভ ট্রেড। আপনার আরো বিভিন্ন রকম ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, মানি ম্যানেজমেন্ট সহ সব কিছু মিলিয়ে আপানার সফলতার ভাগ আরো বাড়িয়ে দিতে পারে।
     
    Warren Buffett এর উক্তিটি অবশ্যই ইনভেস্টমেন্ট সম্পর্কে যা আপনি আপনার ট্রেডিং এ চিন্তা করতে পারেন। উক্তিটি মানি এবং রিস্ক ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে করা হয়েছে। একজন ট্রেডার হিসেবে আপনার মাসের কিংবা বছরের ট্রেডিং সফলতা নষ্ট হয়ে যেতে পারে যদি আপনি সামান্য একটি ট্রেডে অনেক বেশি রিস্ক নিয়ে নেন। এবং সত্যি কথা বলতে এই কাজটি অনেক ট্রেডার হামেশা করে থাকেন। আপনি ভালো ট্রেড করেন, সুন্দর নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই আপনার ট্রেড এগিয়ে চলছে , কোন এক সময় আপনার সেই সময় আসে যখন আপনি একটি ট্রেড সেটআপ খবুই ডেম সিউর হয়ে যান এবং বাড়িয়ে ফেলেন ট্রেডিং রিস্ক দ্বিগুণ – তিনগুনের ও বেশি।  আর যখন সেটআপটা ফেইল হয় তখন হারিয়ে ফেলেন এতো দিনের এতো অর্জন। তাই এমনটি কখনো করবেন না। সব সময় আপনার ট্রেডকে রিস্ক ফ্রী রাখুন।

    Robert Arnott - এর খুব সহজ এই কথাটির উপর যদি আমল করতে পারেন, অর্থাৎ আপনার ইনভেস্টমেন্টে যা আপনার জন্য সাবলীল আরামদায়ক তাই অসধারণ ভাবে আপনার জন্য লাভজনক ! উক্তিটিতে সাবলীল বা আরামদায়ক বলতে সঠিক ট্রেডকে বোঝানে হয়নি। বরং ট্রেডিং এর জন্য আপনার হাতিয়ার তথা স্ট্রেটিজি চার্ট বোঝা পড়া কতটূকু আপনার অনুকুলে ছিল তাই বোঝানো হয়েছে। অর্থাৎ একটি ট্রেড ওপেন করার আগে ঠিক আপনি কতটুকু ভালো ভাবে কমফোর্টলি এনালাইসিস করতে পেরে ট্রেডটি ওপেন করেছেন। আপনার একজন বন্ধুকে বললেন বা সিনিয়র কারো কাছে জিজ্ঞেস করে অন্ধের মত একটি ট্রেড ওপেন করে ফেললেন তাই যেন না হয়।
     
    উক্তিটি একটু গভীরভাবে অনুধাবন না করলে হয়ত এর অর্থটাই পাল্টে যেতে পারে। কারন অনেক ট্রেডের বিশেষ করে নতুনদের মাঝে থেকে একটি প্রশ্ন সব সময় শুনতে পাওয়া যায় ট্রেডিং এ সফলতা কিভাবে আসবে? সত্যি যদি ট্রেডিং এ সফলতা আনতে চান তাহলে আগে একজন ভালো ট্রেডার হয়ে উঠুন , টাকা কে দ্বিতীয় অপশনে রাখুন। অবশ্যই আপনার টাকার দরকার আছে তাছাড়া টাকা অর্জনের জন্যই তো ট্রেডিং করছেন। তাই না ! তবে সেই জন্য প্রথমে টাকার পেছনে না ছুটে বরং আগে মার্কেট বুঝুন , ট্রেডিং প্রসেস জানুন, বুলিশ এবং বেয়ারিশ যুদ্ধটা বুঝুন।
     
    বলছেন টাকা ইনকাম করার আগে আপনার যা আছে তার সুরক্ষা নিশ্চিত করেন। কারন সফল ট্রেডিং এর বড়  এবং অন্যতম চাবিকাঠি  হল মুলধনের সুরক্ষা; কারন আপনি তখনি প্রফিট এর কথা চিন্তা করতে পারেন যদি আপনার মুলধন ঠিক থাকে। 
  4. Abu Monsur liked a post in a topic by অতনু সাগর in বুলিঙ্গার ব্যান্ড এর একটা অনবদ্য স্ট্র্যাটেজী শিখুনঃ দেখবেন মারকেট আপনার হাতের মুঠোয় !!!   
    ফরেক্স মার্কেটে যত ধরনের স্ট্র্যাটেজী আছে, তার মাঝে বুলিঙ্গার ব্যান্ড অন্যতম নির্ভরশীল এক স্ট্র্যাটেজীর মাধ্যম। অত্যন্ত কার্যকরী এই ইন্ডিকেটর দিয়ে অনেক ধরনেরই স্ট্র্যাটেজী বানানো যায়। আমার নিজেরই প্রায় কয়েক ধরনের স্ট্র্যাটেজী আছে এই বুলিঙ্গার ব্যান্ড নিয়ে। সে যাই হোক, আপনাকে ফরেক্স মার্কেটে ভালো কিছু করতে হলে, সবার আগে আপনার ধৈর্য্য নিয়ে মনোঃ সংযোগ তৈরী করতে হবে। আমি আমার আগের পোস্টগুলোর ফিডব্যাকে অনেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন, আমি দেখেছি সবাই কেমন যেন অস্থির একটা ভাব নিয়ে থাকেন। ফরেক্স আপনার অস্থিরতাকে কানা কড়িও মুল্য দেয়না। সুতরাং আপনাকে ফরেক্স এর ভাব বুঝে নিয়ে ট্রেড করতে হবে। 
    আজ আমি আপনাদের অত্যন্ত কার্যকরী একটা স্ট্র্যাটেজী শিখাতে যাচ্ছি, আশা করছি যারা নতুন আছেন, বা অনেক দিন ধরে ট্রেড করছেন কিন্তু ভালো প্রফিট করতে পারছেন না, তারা খুব ভালো উপকার পাবেন। তবে একটা কথা আগেই বলে রাখি, সকল স্ট্র্যাটেজীই ভালো, এটা আপনি যত নিজের মতো করে ভালোভাবে আয়ত্ব করতে পারবেন। ফরেক্স ততোই আপনার কথা শুনবে। আপনার ঝুলিতে এসে জমা হবে ফরেক্স সাফল্য। এবার স্ট্র্যাটেজীর কথায় আসিঃ 
    বুলিঙ্গার ব্যান্ডের সেট আপঃ 
                                          প্রথমে আপনার MT4 চার্ট হতে ইন্ডিকেটর অপশনে যেয়ে বুলিঙ্গার ব্যান্ড খুজে বের করুন। 
                                          ডেভিয়েশানঃ ২
                                          পিরিয়ডঃ ২০ দিবেন, তবে ১৪ তেও মোটামুটি ভালো রেজাল্ট পাওয়া যায়। 

    স্ট্র্যাটেজী ফলো করবার নিয়মঃ
     যদি মার্কেট প্রাইস বুলিঙ্গার ব্যান্ডের মাঝের লাইনের নিচে থাকে তবে মার্কেট ডাউন ট্রেন্ডে আছে বুঝতে হবে।  যদি মার্কেট প্রাইস বুলিঙ্গার ব্যান্ডের মাঝের লাইনের উপরে থাকে তবে মার্কেট আপ ট্রেন্ডে আছে বুঝতে হবে।  যদি মার্কেট প্রাইস বুলিঙ্গার ব্যান্ডের মাঝের লাইন টাচ করে তবে ট্রেড নেবার পজিশান এসে গেছে বুঝতে হবে। এবার অপেক্ষা শুধু পারফেক্ট সেট আপ নেবার। 
    কখন সেল নিবেনঃ 
      যখন মার্কেট ডাউনট্রেন্ডে থাকবে আর প্রাইস বুলিঙ্গার ব্যান্ডের মাঝের লাইন টাচ করবে নিচে থেকে, তখন আপনি রেডী হয়ে যাবেন এন্ট্রী নেবার জন্য।  মাঝের লাইন টাচ করার সঙ্গে সঙ্গে আপনি টাচ করা ক্যান্ডেলের ৩-৫ পিপ্স নিচে একটা সেল স্টপ দিয়ে রাখুন, অথবা অপেক্ষা করুন মারকেট প্রাইসের রিভার্স করা ক্যান্ডেলের জন্য যা আগের ক্যান্ডেলের ৩-৫ পিপ্স নিচে ঘুরে নামবে। তখন একটা সেল এন্ট্রি নিন। বুলিঙ্গার ব্যান্ডের মাঝ লাইন টাচ করা ক্যান্ডেলের ৫-১০ পিপ্স উপরে স্টপ লস দিয়ে রাখুন।  আর টেক প্রফিটের ক্ষেত্রে বুলিঙ্গার ব্যান্ডের নিচের লাইন বরাবর দিয়ে রাখুন।  নিচের ছবিটা দেখে নিন। 
    কখন বাই এন্ট্রি নিবেনঃ
                     বাই এন্ট্রি সেল এন্ট্রির ঠিক উল্টোটা হবে। এখানে মারকেট উপর থেকে নিচে নেমে মাঝের লাইন টাচ করবে। আর একই ভাবে স্টপ লস আর টেক প্রফিট ব্যবহার করবেন। আর এ সংক্রান্ত এনালাইসিস দিয়ে ট্রেড করতে বা পুরোপুরি বুঝতে কারও কোন সমস্যা হলে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনঃ 
    ফেসবুকে আমিঃ https://www.facebook.com/otonu.shagor
    স্কাইপীতে আমিঃ otonu.shagor
    আমার নিজস্ব এনালাইটিক্যাল পেজঃ https://www.facebook.com/bestforexxm
    সবাই ভালো থাকুন, সবাই ভালো ট্রেড করুন।
    আর পরিশেষে আমার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ্‌ হাফেয।
     
  5. Abu Monsur liked an answer to a question by Mhafiz™ in What is correction?   
    ফরেক্স মার্কেট তথা যেকোন মার্কেট এর প্রাইস মুভমেন্ট হাই বা লো যেভাবে চলুক না কেন, নির্দিষ্ট একটি মুভমেন্টের পরে মার্কেট রিভার্স করে থাকে চাহিদা অনুযায়ী। আর এই শর্ট রিভারসিং বা স্বল্প  সময়ের বিপরীত মুখী মার্কেট হচ্ছে কারেকশন যা ১০% থেকে - ৩০% স্বাভাবিক ভাবে হয়ে থাকে। কখন মার্কেট রিভার্স করবে তার কোন নির্দিষ্ট উত্তর কেউ দিতে পারবে না, তবে এনালাইসিস, কারেন্সি ফ্লো এবং এর চালিকার নির্ভরতা সব কিছু মিলিয়ে মোটামুটি ভাবে আপনি কিছু কারেকশন ট্রেড করতে পারেন। অন্যভাবে বলতে গেলে Over bought এবং Over sold হলে কারেকশন হয়।
  6. Abu Monsur liked a post in a topic by অতনু সাগর in নতুনদের জন্য ফরেক্স-ট্রেডিং অভিজ্ঞতা ও কিছু দিক নির্দেশনা   
    ফরেক্স এমন একটি মার্কেটের নাম যেখানে রয়েছে ট্রেডারদের জন্য অফুরন্ত সম্ভাবনা। ভালো-মন্দ দুই অর্থেই কথাটা সঠিক। এই মার্কেটে প্রতিদিন ৪ ট্রিলিয়ন ডলারেরও বেশি লেনদেন হচ্ছে। এই মার্কেটে কেউ মিলিওনার হচ্ছে আবার কেউ নিমিষেই একটু ভুলের কারনে একদম জিরো হয়ে পথে বসছে। আপনি কোনটা হতে চান? মিলিইওনিয়ার? নাকি পথের ভিখারী?

    আমি জানি আপনি কি বলবেন। সবাই আপনার কথাই বলবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে এটা হওয়া কি এতোই সহজ? আর কিভাবেই বা আপনি তা হতে পারবেন? 
    নতুন যারা ফরেক্স-এ আসছেন, আর যারা অনেকদিন ধরে ফরেক্স-এ আছেন, তাদের মধ্যে একটাই তফাত। একজন কোন ভাবনা ছাড়াই ট্রেড ওপেন করে। আরেকজন ভেবেচিন্তে অনেক দিক বিবেচনা করে ট্রেডে এন্ট্রি নেয়। কোনটার ফলাফল কি? প্রথমজন দুই একটা ট্রেদ ভালো প্রফিট পেতে পারে, কিন্ত পরক্ষনেই সব শেষ করে ফেলে। ব্যালান্স জিরো। অপরজন ভালো ফলাফল না পেলেও, আরও ভেবে নিয়ে আবাএর ট্রেড নেই, মানি ম্যানেজমেন্ট ফলো করে। এরফলে এভারেজে সে ঠিকই প্রফিট বের করে আনে। আপনি কোন দলে থাকতে চান? 

    ফরেক্স একটি বিশুদ্ধ ব্যাবসায়িক প্লেস। এখানে আপনাকে পুরোদস্তুর ব্যাবসায়ী বনে যেতে হবে। এখানে কোন ইমোশনের মুল্য নেই। ভেবে কাজ করতে হবে। কাজ শুরু করে ভাবার অবকাশ নেই। আপনি আগে নিজেকে তৈরী করুন, এরপর মার্কেটে নিজের পয়সা ঢালুন। অযথা এটাকে যাদু বা ম্যাজিক মার্কেট ভাববেন না। তাহলে যাদুর মতোই নিজে ভ্যানিশ হয়ে যাবেন।
    অনেকের প্রশ্ন, ডেমোতে ভালো প্রফিট পাই, রিয়েলে পাইনা কেন? রিয়েলে ট্রেড ওপেন করবার সময় আর ট্রেড ওপেন করবার পরের অবস্থা কল্পনা কুরুন। কেমন টেনশনে থাকেন তাই না? একটু প্রফিট হলেই কেটে দেন? আর লস যত হয়, আপনি আপনার স্টপলস আরও বাড়িয়ে দেন? তাহলে শুনুন, এভারেজে আপনার প্রুফিটই থাকত কিন্তু আপনি আগেই ট্রেড ক্লোজ করে দিয়েছেন যে। যে কাজটা আপনি মোটেও ডেমোতে করেন না!
    নতুন ট্রেডের শুরুতেই ভালো প্রফিট করছেন? বেশি উত্তেজিত হবেন না। কারন পরক্ষনেই আপনি লসে যেতে পারেন। 
    প্রথম থেকেই লস করছেন? ঘাবড়াবেন না। ফরেক্স কে ভালো করে শেখার প্রত্যয় নিন। প্রফিট আপনার হাতে ধরা দেবেই। অনেকেই আমাকে শুরুতেই জিজ্ঞেস করেন, আপনি ফরেক্স-এ কতদিন হলো আছেন? বা আপনি মাসে কত করে প্রফিট করেন?
    এমন প্রশ্নের কোন উত্তর হয়না। কারন অনেকেই আছে, যারা ৬-৭ বছর ফরেক্স করেও লসের গন্ডিই পেরোতে পারেনি। আবার অনেকে ১-২ বছরের ভিতরেই ভালো প্রফিট করছে। এর প্রধান কারন হল, সবার আগে টাকা বা প্রফিটের কথা না ভেবে আগে শেখার চেষ্ঠা করুন। মার্কেটকে আপনি বুঝতে পারলে প্রফিট অনেক সহজ হয়ে যাবে আপনার জন্য। নয়তো ফরেক্স মানেই এক বিভিষিকা মনে হবে আপনার  কাছে। 
     
    অনেকে আছে যারা নিজেরা রিস্ক নিতে ভয় পায়। আর সেজন্য তারা সিগনাল কেনে। মনে রাখবেন বেশিরভাগ সিগনাল প্রভাইডাররাই লস করে থাকে। কয়েকজন আছে যারা প্রফিট করে। আমারও একটা সিগনাল গ্রুপ আছে। অনেক ফলোয়ার তা ফলোও করছে, প্রফিটও করছে। কিন্ত আদতেই তাতে কোন লাভ হচ্ছে কি? সাময়িক সময়ের জন্য তারা প্রফিট  পাচ্ছে ঠিক, কিন্তু সারাজীবনের জন্য তারা পরনির্ভরশীল হয়ে পড়ছে। কারন সিগনাল প্রোভাইডার লস ট্রেড নিলে তারাও লস করছে, আবার লাভের ট্রেড  নিলে তারাও লাভ করছে। 
    সবার আগে তাদের উদ্দেশ্যেই আমার কথাগুলো যারা আসলেই ফরেক্সে প্রফিট করতে চায়, প্রথমে সাপোর্ট-রেসিস্ট্যান্স চিনুন। পিভট কাকে বলে জানুন, বিভিন্ন ক্যান্ডেলের কোনটার কোন অবস্থা জানুন। ট্রেন্ড লাইন সম্পর্কে ভালো ধারনা রাখুন। নিউজ সমপর্কে আপডেট ধারনা নিয়ে রাখুন। এরপর ফরেক্স করতে শুরু করুন। মার্কেট কোথায় কেমন করছে, কোন অবস্থায় কেমন আচরন করছে জানার চেষ্ঠা করুন। পারলে নোট করে রাখুন। আর সবচেয়ে যে বিষয়টি আপনাকে স্থায়ীভাবে মনে গেঁথে রাখতে হবে, তা হল মানি-ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে পরিস্কার ধারনা। এর উপরই নির্ভর করবে ফরেক্স মার্কেটে আপনার টিকে থাকা। এসব বিষয়ে মোটামুটি দক্ষ হতে পারলে ফরেক্স আপনার জন্য অনেক ইজি হয়ে যাবে।
    সবচেয়ে ভালো হয়, এসব বিষয়ে কোন অভিজ্ঞ কারও সহচর্য নেবার চেষ্ঠা করুন। একজন সফল ট্রেডারই পারে আপনাকে সফলতার সিড়িতে পা রাখতে। অভিজ্ঞদের মতামতকে গুরুত্ব দিতে শিখুন। কার কাছে কোন ইনফরমেশন আছে আপনার জন্য তা আপনি ভাবতেও পারবেন না। তাই সবাইকে সমোঝে চলুন। 
    পরিশেষে সবার উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনায়ঃ
    ফেসবুকে আমিঃ https://www.facebook.com/otonu.shagor
    স্কাইপীতে আমিঃ otonu.shagor
    আমার নিজস্ব এনালাইটিক্যাল পেজঃ https://www.facebook.com/bestforexxm
    সবাইকে ধন্যবাদ। 
  7. Abu Monsur liked a post in a topic by Rayhan07 in বাস্কেট ট্রেডিং এর কিছু তথ্য   
    বাস্কেট ট্রেডিং কি : নামেই পরিচয় আমরা বেশকিছু কারেন্সি পেয়ার একসাথে বাই সেল দিয়ে একটা বাস্কেট তৈরী করবো এবং এই বাস্কেটের সব পেয়ারকে একসাথে একটি পেয়ার হিসাবে বিবেচনা করবো মানে সবার মিলে একসাথে লাভ হবে না লস হবে । আমাদের টার্গেট থাকবে একটি ব্যালান্স বাস্কেট তৈরী করা । 
    বাস্কেট এর সুবিধা কি : ঠিকভাবে বাস্কেট করা গেলে সেখানে সেখানে রিলেটেড পেয়ারগুলো একটা ব্যালান্স তৈরী করে । আমাদের টার্গেট এই ব্যালান্স এর ফ্লাকচুয়েশান থেকে প্রফিট করা । মার্কেট তার সাধারন নিয়মে অাপট্রেন্ড ও ডাউনট্রেন্ড এ যায় । আমাদের বাস্কেটেও এমন একটা কম্বাইন্ড আপ ডাউন তৈরী হবে । এখান থেকেই আমরা প্রফিট করব । বাস্কেট হবে সাধারন কোনো সিঙ্গেল পেয়ার থেকে অনেক ষ্ট্যাবল কারন এখানে আমরা অনেকগুলো পেয়ারের একটা গ্রুপ ট্রেড করছি । 
    বাস্কেট ট্রেডিং এর অসুবিধা : মেইন অসুবিধা ট্রেডিং ব্যায় অনেক পেয়ার মানে অনেক স্প্রেড ও কমিশন দিতে হবে । তবে এটা নিয়ে চিন্তা করার বিছু নাই , কারন আমাদের উদ্দেশ্য লংটার্মে ট্রেড করা । আমাদের এক একটা বাস্কেট 300 থেকে 600 বা 1000 পিপ পর্যন্ত প্রফিট দিবে । এবং এই প্রফিট হবে তুলনামূলকভাবে অনেক কম সময়ে । এর পরের প্রবলেম বাস্কেট ক্রিয়েট ও কন্ট্রোল করা এতগুলো ট্রেড ম্যানুয়েলি একসাথে করা অনেক কষ্ট সাধ্য । আমরা এই প্রবলেম সলভ করব কিছু স্ক্রীপ্ট ও ট্রেড ম্যানেজমেন্ট এর সাহায্যে । তাই আগে বুঝুন ও দেখুন যে আপনারা বাস্কেট ট্রেডিং এ আগ্রহী কিনা ।
  8. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in Double Bollinger bands - এইবার প্রফিট না হইয়া যাইব কই ! নিশ্চিত প্রফিট ট্রেডিং স্ট্রেটিজি।   
    বলিঙ্গার বেন্ডের ধারাবাহিক আলোচনায় আবারো স্বাগতম সবাইকে, বলেছিলাম যে যারা আমার এই পোস্টগুলো নিয়মিত ফলো করবেন এবং অনুশীলনের মাধ্যমে সেই মোতাবেক ট্রেড করবেন তাদেরকে নিশ্চিত প্রফিট করিয়ে ছাড়বো এবং বলিঙ্গার এক্সপার্ট ট্রেডার বানাবো। হ্যাঁ এখনও তাই বলছি তার তারই ধারাবাহিক পর্ব হিসেবে আজকে শুরু করছি এই সিরিজের পঞ্চম পর্ব , ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, প্রফিট না হইয়া যাইব কই !
    What is Double Bollinger Bands?
    সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং সুবিধার জন্য ডাবল বলিঙ্গার বেন্ডটি প্রথমদিকে একটি টুল হিসেবে ব্যাবহার হত। সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং খুবই চেলেঞ্জিং একটি পদ্ধতি যেখানে ট্রেডাররা অনেক রিস্ক নিয়ে এই ধরনের ট্রেড করে থাকেন। আর এই পদ্ধতিতে ট্রেডিং রিস্ক কমানোর জন্যই ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড এর উৎপত্তি, যেই পদ্ধতিতে ট্রেডাররা আগের এই পদ্ধতিতে রিস্ক অনেক কমিয়ে আগের চেয়ে ভালো ট্রেড করতে পারে। এই পদ্ধতিতে ট্রেডিং টাইমিং টা খুবই জরুরি একটা ফেক্টর যার অভাবে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত বিসয় ঘটতে পারে যা ট্রেডার জন্য মোটেও ভালো নয়।
    How does double Bollinger bands work?
    মুলত এই পদ্ধতির ট্রেডিং এর জন্য ২ সেট বলিঙ্গার বেন্ড এর প্রয়োজন হয় বলে ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড হিসেবে নাম করন করা হয়েছে। যেখানে একটি বেন্ডের উপর আরেকটি বেন্ড স্ব- স্ব ভেলু নিয়ে কাজ করে থাকে। এই ক্ষেত্রে একটি বলিঙ্গার বেন্ড ২০ ডে মুভিং আভারেজ এবং স্ট্যান্ডার্ড ডিবিয়েশন ১ এবং অপরটি সেইম মুভিং এভারেজে স্ট্যান্ডার্ড ডিবিয়েশন ২ ভেলুতে সেট করে কাজ করতে হয়। এতে করে দুটি বলিঙ্গার এর মাঝে একটি গ্যাপ তৈরি হয় যার মাধ্যমেই এই স্ট্রেটিজির প্রফিট লস এবং স্টপ লস সেটিং করে ট্রেড করা হয়। ট্রেডাররা দুটি বলিঙ্গার এর স্প্রেড বা গ্যাপ কে ট্রেডিং এন্ট্রি এবং এক্সিট ধরে ট্রেড শুরু করে।
    তাহলে দুটি বলিঙ্গার এর মান হবে নিম্বের মতঃ
     
    প্রথম বলিঙ্গার বেন্ড ভেলু;
    Period: 20
    Deviations: 2
    Shift: 0
    দ্বিতীয় বলিঙ্গার বেন্ড ভেলুঃ
    Period: 20
    Deviations: 1
    Shift: 0
    আপনার চার্ট কে দুটি বলিঙ্গার বেন্ডের ভিন্ন ভিন্ন ডিবিয়েশনে সেট করা পর দেখতে এমন হবে। মনে রাখবেন দুটি বলিঙ্গারের মিডল বেন্ড কিন্তু সেইম। দুটি ভিন্ন ডিবিয়েশনের অবস্থান বোঝানোর জন্য দুটিকে আমি আলাদা আলাদা রঙ্গে সেট করেছি আশা করছি বুঝতে সমস্যা হবে না।
    সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং থেকে ভালো প্রফিট করার সবচেয়ে গুরত্তপুর্ন এবং উপযোগী একটি পদ্ধতি হল ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড স্ট্রেটিজি। আসুন দেখি এইবার কিভাবে আপনার ট্রেডগুলো সেট হবে। আরেকটা কথা স্ট্রেটিজিটি একটু স্লোলি বুঝে পড়ুন দেখবেন একদম সহজ, পড়ার সাথে সাথে ছবি ধরে বুঝে এগুতে থাকুন, জটিল হবে না।
    লং ট্রেড সেটআপঃ
    তাহলে এতক্ষণের আলোচনায় আশা করছি দুটি বলিঙ্গার বেন্ড বুঝে নিয়েছেন এবং সেটিং তা বুঝতে পেরেছেন ভালো ভাবে, এইবার ট্রেডে কিভাবে ঢুকবেন তা বলছি খেয়াল করুন। আরেকটা কথা বলে নেয়, আলোচনার জন্য আমি ডিবিয়েশন ১ বলিঙ্গার কে BB1 এবং ডিবিয়েশন ২ বলিঙ্গারকে BB2 নাম ধরে ডাকবো।  
     
    বায় ট্রেডে ডুকার জন্য আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে একটি ক্যান্ডলের জন্য যা BB1 এর আপার বেন্ডে ক্লোজ হয়েছে। তারপর আপনাকে দেখতে হবে যে তার পূর্বের ক্যান্ডলে গুলো কোথায় ক্লোজ হয়েছে BB1 এর আপার বেন্ডের উপরে নাকি নিচে। যদি তাই হয় তাহলে আপনি পেয়ে গেছেন লং ট্রেড সিগনাল। অর্থাৎ আপনি এখন নিশ্চিত বায় ট্রেড করতে পারবেন। খেয়াল করুন নিচের চিত্রে BB1 এর আপার বেন্ডের উপরে ৩ নম্বর ক্যান্ডেল্টি ক্লোজ হয়েছে। এবং পূর্বের ২টি ক্যান্ডেল ক্লোজ হয়েছে BB1 আপার বলিঙ্গারের নিচে। আর মাধ্যমে আপনি নিশ্চিত ৩ নাম্বার ক্যান্ডেল বায় ট্রেড দিতে পারেন।
    স্টপ লসঃ
    ৩ নাম্বার ক্যন্ডেলের লো প্রাইসে অর্থাৎ BB1 এর আপার বেন্ডে ৩য় ক্যন্ডেল ক্লোজে আপনি যে বায় অর্ডার দিয়েছেন তার লো একদম লো প্রাইসে স্টপ লস সেট করে দিবেন। অনেকে অবশ্য ৩য় ক্যান্ডেলের লো প্রাইসের ১০-১৫ পিপস নিচে স্টপ লস সেট করে থাকেন, এই ক্ষেত্রে আপনি বলব আপনি প্র্যাকটিস এর মাধ্যমে নিজেই ঠিক করে নিবেন কোথায় স্টপ লস সেট করবেন।
    টেইক প্রফিটঃ
    যে পরিমান স্টপ লস অর্থাৎ যত পিপস স্টপ লস পয়েন্ট সেট করেছেন তার দ্বিগুণ টেইক প্রফিট সেট করে ট্রেডকে ফাইনালি সেট করে নিন। এই ক্ষেত্রে অনেক ট্রেডার আছেন যারা ট্রেইলিং করে থাকেন, যেমন মার্কেট যদি ৫০ পিপস আপনার অনুকুলে যায় তখন স্টপ লসও ৫০ পিপস ট্রেইল করে করে এইভাবে দীর্ঘ মেয়াদি প্রায় ২০০-৫০০ পিপস পর্যন্ত বা তার ও বেশি প্রফিট নিয়ে থাকেন।
    এইভাবে লং ট্রেড করবেন, এর শর্ট ট্রেডের কথা আশা করি আর বলতে হবে না, লং ট্রেড যেভাবে করেছেন তার বিপরীত নিয়মে BB1 লাওয়ার বেন্ডের মাধ্যমে শর্ট ট্রেড করবেন।
    পদ্ধতিটি অনেক সুপার কাজ করে যদি ঠিক মত অনুশীলন করে ব্যাবহার করতে পারেন তাহলে নিশ্চিত ভালো প্রফিট নিতে পারবেন।
  9. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in জেনে নিন ফরেক্স MT4 এর Short-Hoy Keys গুলো।   
    ফরেক্স মেটা ট্রেডারের কাজকে আরো ফাস্ট করতে আপনাদের দরকার হতে পারে, MT4 hot-keys গুলো। তা একবার দেখে নিতে পারেন।


  10. রায়হান রহমান liked an answer to a question by Abu Monsur in Support and Resistance   
    Asha kori nicher video ti dara apnar problem solve hobeN.B.Na bujhle amake FB te add korun-
    www.facebook.com/monsur.cu
     
  11. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in Harmonic - ABCD ফরেক্স প্রাইস প্যাটার্ন ট্রেডিং।   
    টেকনিকেল এনালাইসিস টুলস হিসেবে আপনারা অনেক অনেক চার্ট প্যাটার্নে ট্রেড করেছেন ইতিমধ্যে আশা করি, তবে সবগুলো প্যাটার্নে সব সময় ট্রেড করা এবং সব গুলো প্যাটার্ন মনে রেখে সব সময় ট্রেড করাটা ও দুস্কর। কিছু প্যাটার্ন আছে জেগুলো ফরেক্স মার্কেটে খুব প্রচলিত এবং জনপ্রিয় যা প্রায় সময় আপনি পেয়ে থাকবেন, আর যদি ঐসব প্যাটার্ন গুলো ভালো ভাবে আয়ত্তে রেখে ট্রেড করতে পারেন তাহলে আপনি নিশ্চিত থাকুন যে মার্কেট যতই মন্থর থাকুক না কেন আপনি ঠিকই ট্রেড চালিয়ে যেতে পারবেন।  হ্যাঁ আজকে আলোচনা করব তেমনি কিছু প্যাটার্ন এর উপর যেগুলোর আলোচনায় আপনার ট্রেড হবে আরো উন্নত এবং সাফল্যমণ্ডিত।
    আজকে যে প্রকার চার্ট গুলো নিয়ে আলোচনা করব সেগুলো মুলত আপনাকে সাহায্য করবে ট্রেন্ড এর স্থায়িত্ব এবং ট্রেন্ড রিট্রেসমেন্ট বুঝে ট্রেড করতে। তবে এই প্যাটার্নটিতে ট্রেড করতে আপনাকে ফিবানাসি টুলস সম্পর্কে জানতে হবে।
    ABCD – Pattern
    এই প্যাটার্নটি আসলে ABC’র মতই সহজ তাই এর নাম করন টা এমনি, বেশি কথা না বলে আগে চলুন ছবিটি দেখি,
     
    আসুন এইবার দেখি কিভাবে কাজ করে, উপরের ছবি অনুসারে দেখুন এবং মনে রাখবেন, লং এবং শর্ট উভয় ট্রেডের জন্য AB & CD হল LEGs এবং BC হল কারেকশন বা রিট্রেসমেন্ট; এখন আপনি যদি  LEG – AB হিসেবে ফিবনাসি টুলস ব্যাবহার করেন তাহলে রিট্রেসমেন্ট প্রথম লেভেল হিসেবে আপনার প্রথম রিট্রেসমেন্ট BC হবে লেভেল ০.৬১৮; দ্বিতীয় রিট্রেসমেন্ট LEG – CD এর জন্য হবে ১.২৭২; এভাবে; এটা খুবই সিম্পল একটি ফর্মুলা ফিবনাসি রিট্রেসমেন্ট লেভেল হিসেবে আপনি এই হিসেবেটা করে ট্রেড করতে পারবেন।
    ABCD – এই সিম্পল প্যাটার্নটিকে যদি আরো সুন্দর এবং স্ট্রিক করতে চান তাহলে নিচের রুলস গুলো মেনে চলুন;
    AB লাইন এর দৈর্ঘ্য এবং CD লাইন এর দৈর্ঘ্য একই হবে। লাইন A থেকে B প্রাইস তৈরিতে যেটূকু সময় লেগেছে লাইন CD এর জন্য সময়টূকু সমান হতে হবে। প্যাটার্নটিতে ট্রেডিং খুব সহজ কিন্তু যদি ভালো প্র্যাকটিসের মাধ্যমে ব্যাবহার শুরু করেন তাহলে ট্রেডকে আগের চেয়ে অনেক নিরাপদ করে তুলতে পারবেন।

  12. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in EUR/USD – ফান্ডামেন্টাল, টেকনিক্যাল এনালাইসিস এবং ফোরকাস্ট (২৯ জুন – ৩ জুলাই)   
    ফান্ডামেন্টাল
    গ্রিস পর্বের Euro Group meeting এর ফলাফলের জন্য এখন পর্যন্ত EUR স্থির অবস্থানে রয়েছে। সবার দৃষ্টি এখন Greece এর দিকে, প্রথম পয়েন্ট তাদের চড়া লোন সমস্যার সমাধান, ১ বিলিয়নের ও বেশি লোন পরিশোধে Greece এখন পর্যন্ত সমর্থ নয়। উক্ত গ্রিস ক্রাইসিস এর বর্তমান অবস্থার উপর ইতিমধ্যে সমস্ত EUR কারেন্সির উপর মার্জিন ১% থেকে উন্নিত করে ২% করা হয়েছে যা জুন ২৬ থেকে বলবত হয়েছে। কিন্তু এখনো জট ছুটেনি Greece Crisis এর। নতুন সপ্তাহে এই জট কতখানি ছুটবে সে ব্যাপারেও নিশ্চিত করে কিছু বলা জাচ্ছে না। কারন গত সপ্তাহের ট্রেডাররা মোটামুটি প্রিপারেশনে ছিল EUR কারেন্সি নিয়ে। কিন্তু Greece crisis অবস্থানের স্পষ্ট কোন ফলাফলের কারনে তেমন কিছুই হয়নি গত সপ্তাহে।
    আজকে আবার রবিবার থেকে চলতে থাকা Euro Group Meeting ডেডলাইন জুন ৩০ মঙ্গলবার। তাই প্রথম ২-৩ দিনের মার্কেট স্থির অবিচল।  এবং গত সপ্তাহে তেমন কোন লেনদেন না হওয়ার দরুন সোমবার পর্যন্ত ব্যাংক বন্ধ থাকার ঘোষণা। তাই এখন পর্যন্ত EUR সঙ্কেত আশাজনক নয়, এমতবস্থায় EUR ট্রেডের বিষয়ে আপাতত বড় কোন সিধান্তে না পোঁছানো হবে বুদ্ধিমানের কাজ।   
    টেকনিক্যাল
    যদিও এই মুহূর্তে EUR কারেন্সি ট্রেডের ক্ষেত্রে অনেক খানি নির্ভর করছে Greece Events এর উপর, তবে টেকনিক্যাল এনালাইসিস আপনার সিদ্ধান্তকে স্থির রাখতে অনেকটুকু ভুমিকা পালন করবে।
    বর্তমান স্বাভাবিক মার্কেট ট্রেন্ড বেয়ারিশ, এবং গ্রিস ক্রাইসিস ও তারই ইঙ্গিত দিচ্ছে, টেকনিক্যাল এনালাইসিস চার্ট অনুসারে EUR/USD কারেন্সির লাস্ট সাপোর্ট লেভেল ১.০৮০০ এবং রেসিসটেন্স লেভেল হল ১.১৬০০, অর্থাৎ ট্রেডিং রেঞ্জ হচ্ছে প্রায় ৮০০ পিপস লং ট্রেড অনুসারে, এবং বর্তমান মার্কেট ১.১১৬৫ অর্থাৎ প্রাইস এখন একদম মাঝামাঝি। আর এই জন্যই EUR/USD এই মুহূর্তে হয়তবা সবচেয়ে রিস্কি অবস্থায় আছে।
     
    উপরের চিত্ত অনুসারে, এই কারেন্সির উক্ত তিনটি টপ ( v, ii, iv ) এবং বটম ( i, iii, v ) লেভেলে মার্কেট এখন লেভেল ii অবস্থান করছে, যার প্রথম ব্রেকাউট লেভেল ১.১০০০ এবং দ্বিতীয় ব্রেকাউট লেভেল ১০৮০০ পর্যন্ত ইঙ্গিত করছে মুল দুটি কারেকশন লেভেল ১.১৩০০ এবং ১.১১০০ মাধ্যমে।
    ঠিক বিপরীতভাবে, ক্রিটিকেল লেভেল ১.১৪১১ এর ব্রেকাউটে মার্কেট প্রাইস লেভেল ১.১৫-১.১৬০০ পর্যন্ত রাইজ হতে পারে।
    ইন্ডিকেটর টুলস ফোরকাস্টঃ
    মুভিং এভারেজ – সাপ্তাহিক চার্টঃ  শক্তিশালি বেয়ারিশ মার্কেট অবস্থান।
    টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরসঃ সাপ্তাহিক চার্টঃ  বুলিশ মার্কেট
    পিভট পয়েন্টস – ডেইলি চার্টঃ ১.১৩২৬
    S1 – 1.1215                                    S2 – 1.1077                            S3 - 1.0966                 
    R1- 1.1464                                      R2- 1.1575                             R3 1.1713
  13. MohabbatElahi liked a post in a topic by Abu Monsur in Forex Training Course   
    Is The insider secret of global Forex market in Bengali?
  14. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in বলিঙ্গার বেন্ড স্কেল্পিং- Bollinger bands scalping নিশ্চিত প্রফিট- A-Z ফরেক্স এক্সপার্ট ট্রেডিং – ( পোস্ট পর্ব ৪ )   
    বলিঙ্গার বেন্ড এর ধারাবাহিক আলোচনায় আপনাদেরকে আবারো স্বাগতম। প্রত্যেক পোস্ট এর পূর্বে আমি একটি কথা বলে নেয় সেটা হচ্ছে যেহেতু ধারাবাহিক পোস্ট তাই আগের পর্ব গুলো পড়ে নেওয়া। এতে করে আপনি একটি ডিসিপ্লিন এ থাকবেন।
    যাহোক আজকের পর্বে আলোচনা করবো বলিঙ্গার বেন্ডস স্কেল্পিং ট্রেডিং সম্পর্কে। যারা নিয়মিত ট্রেড করেন তারা আশা করি জানেন যে স্কেল্পিং কি, সংক্ষেপে একটু বলে নিচ্ছি, স্কেল্পিং হল অনেকটা শর্ট টাইম বেসিস সুবিধাভোগী ট্রেড, যেমন ১-২ মিনিট সময় স্থায়িত্তের কিংবা সর্বচ্চো ৫ মিনিট সময় ব্যাপ্তি মার্কেট এর ভিবিন্ন স্কেলে যেসব ট্রেড হয় তাই হল স্কেল্পিং। অনেক অনেক স্ট্রেটিজি এবং টুলস এর মাধ্যমে স্কেল্পিং করা যায়, আমি আলোচনা করবো বলিঙ্গার বেন্ড দিয়ে কিভাবে স্কেল্পিং হতে পারে।
    এই মেথডটি খুব সিম্পল এবং সহজ তাই এইখানে বেশি আলোচনা করব না, স্ট্রেটিজিটির জন্য মুলত আপনার প্রয়োজন একটি চার্ট সেটিং যার মাধ্যমে আপনার ট্রেডগুলো হবে, তবে আরেকটি বিষয়টি মাথায় রাখবেন স্কেল্পিং ট্রেড যেমন অনেক প্রফিটেবল তেমনি অনেকটা রিস্কি বটে তাই সাবধান থাকবেন। এবং আরো মাথায় রাখবেন আপনার প্রতিটি ট্রেড কিন্তু সফল হবে না যেমন ধরুন ৫টি ট্রেড করলেন এই পদ্ধতিতে তারমধ্যে ১ বা ২ টি ট্রেড লস হতে পারে। ভালো অভিজ্ঞতা নিয়ে করলে হয়ত ১টির বেশি ট্রেড লস হবে না।

    বেন্ড রেঞ্জ ঢালু এরিয়া (Slope) থেকে যখন প্রাইস আপ হয় তখন বায় ট্রেড আর যখন বেন্ড এরিয়ার দিকে প্রাইস ডাউন হয় তখন সেল ট্রেড করতে হয়, আসুন কিভাবে তা করতে হয় ভালোভাবে দেখি। আমার মতে স্কেল্পিং ট্রেডার জন্য সবচেয়ে ভালো কারেন্সি হল EUR/USD & GBP/USD. আরেকটি বিষয় মনে রাখবে নিউজ আওয়ারে স্কেল্পিং ট্রেড না করাই ভালো।
    চার্ট সেটআপঃ
    কারেন্সি পেয়ারঃ  EUR/USD, GBP/USD
    ট্রেডিং সেশনঃ  London
    টাইমফ্রেমঃ ৫ মিনিট
    ট্রেডিং রুলসঃ লং ট্রেড
    বলিঙ্গার বেন্ড অবশ্যই আপ ট্রেন্ডি (Slope up) হতে হবে; প্রাইস যখন উপর থেকে বলিঙ্গার মিডল বেন্ড টাচ করবে তখন বায় অর্ডার করুন; ১৫ পিপস স্টপ লস সেট করুন; আপার বেন্ড পর্যন্ত টেইক প্রফিট নিন; ট্রেডিং রুলসঃ শর্ট ট্রেড
    বলিঙ্গার বেন্ড অবশ্যই ডাউন ট্রেন্ডি (Slope Down) হতে হবে; প্রাইস যখন নিচ থেকে বলিঙ্গার মিডল বেন্ড টাচ করবে তখন সেল ট্রেড অর্ডার করুন; ১৫ পিপস স্টপ লস সেট করুন; লাওয়ার বেন্ড পর্যন্ত টেইক প্রফিট নিন; এই পদ্ধতিটি অবশ্যই আগে ডেমোতে অনুশীলন করবেন কারন স্ট্রেটিজিটি আপনি আপনার মত করে ব্যাবহার করবেন কিছু ডেমো ট্রেড করলে বিষয়টি বাস্তবিকভাবে আরো কি পরিবর্তন হওয়ার দরকার নিজেই বুঝে যাবেন তারপর লাইভ ট্রেডে যাবেন।

    আসুন এইবার ছবিটি বিশ্লেষণ করি,
    ট্রেড ১;
    Slope up ট্রেন্ডে প্রথম ট্রেডটি বায় করা হয়েছে ১.৩৯৮১ মিডল বেন্ড থেকে
    স্টপ লস লাওয়ার বেন্ড অর্থাৎ ১৫ পিপস ছিল
    ট্রেডটি ক্লোজ করা হয়েছে ১.৩৯৯৯ প্রাইসে, ১৮  পিপস প্রফিট;
    ট্রেড ২;
    Slope Down ট্রেন্ডে ২য় ট্রেডটি সেল অর্ডার করা হয়েছে ১.৩৯৮৬ মিডল বেন্ড থেকে
    স্টপ লস আপার বেন্ড অর্থাৎ ১৫ পিপস ছিল
    ট্রেডটি ক্লোজ করা হয়েছে ১.৩৯৭১ প্রাইসে, ১৫  পিপস প্রফিট;
     
    এইভাবে মোট ৬ টি ট্রেড করা হয়েছে যারমধ্যে লস ছিল ১টি ট্রেড , মোট ৭০+ পিপস প্রফিট হয়েছে। পদ্ধতিটি খুবই সহজ, ভালো অনুশীলন আর মাধ্যমে প্রফিট করে নিতে পারেন সহজে ।
  15. Abu Monsur liked a post in a topic by অতনু সাগর in ফরেক্স নিয়ে যত প্রশ্ন, দেখে নিন ফরেক্স মার্কেট আপনার জন্য কি না?   
    ভাই ফরেক্স কি?, আপনি কেন ফরেক্স করছেন? 
    ভাই ফরেক্স করে যদি প্রফিট করেন, তবে বিল গেটস হচ্ছেন না কেন?
    ভাই ফরেক্স করে আয় করা যায় তো? আপনি কত আয় করেছেন? 
    কতদিন হলো ফরেক্স করেন ভাই? ফরেক্স চলে যাবে না তো?
    ভাই ফরেক্স যদি বৈধ হতো, তবে বাংলাদেশ ব্যাঙ্ক কেন তা বৈধ করে না এখনও?
    কিছু কিছু ট্রেডার আছে, তারা শুধু এনালাইসিসই করে, নিজেরা মার্কেট থেকে প্রফিট করতে পারেনা বলে ধান্দা করে এনালাইসিস করে এটা ওটা প্রোভাইড করে। কিন্তু কেন ভাই?
    নিজের দেশের ভাইদের ফ্রিতে শিখালে অসুবিধা কোথায়? আমরা ভাই ভাই তো?
    ভাই ফরেক্স ইসলামে হালাল তো?
    এতো টাকা ফরেক্স কোথা থেকে পায়? এটা আবার জুয়া নয় তো? 
    ভাই, সবাই যদি প্রফিট করে তবে এতো টাকা ফরেক্স কোথা থেকে দিবে? 
    ফরেক্স এতোই ভালো হলে সবাই লস খায় কেন?
    ............................................................... (e. t. c) 
    এমন আরও হাজারো প্রশ্নের সম্মুখিন হয়েও যখন আপনি মাথা ঠান্ডা রেখে উত্তর দেবার প্রয়াস খুজবেন নিজের ভিতর কোন রকম কনফিউশান তৈরী না করেই, তবে আপনি বুঝবেন আসলেই আপনি ফরেক্স ট্রেডিং এর জন্য উপযুক্ত। 
    একজন ট্রেডার টানা কয়েক বছর সাধনার পর যখন সফলতার মুখ দেখতে শুরু করে, এটা ওই ট্রেডারের একান্তই অভিজ্ঞতার ফসল। হতে পারে এর পেছনে তার কোন ভালো গাইডলাইনও থাকতে পারে। কারন সামনে কোন গাইড থাকলে সহজেই পথ হারাবার ভয় থাকে না।


     আর এই ট্রেডার যখন ফরেক্স করতে ইচ্ছুক অন্য কাউকে অতি দ্রুত (৩-৪ দিনের ভিতর) তার সমস্ত অভিজ্ঞতা শিখিয়ে দিতে অপরাগ হয় বা এই পরিশ্রমের পিছনে সামান্য কিছু দাবী করে তখনই তার সেই অভিজ্ঞতা নিয়ে কেউ কেউ মুখ কালো করা ফালতু বাণী ফেসবুক পোস্টে ছেড়ে দেয়, যেন ফরেক্স কোন জুসের গুড়া। গুলিয়ে খেলেই শেখা যাবে। কেন ভাই, শুধু সেই ফরেক্স ট্রেডারদের দোষ দিচ্ছেন কেন? লাখ লাখ টাকা কামানো বড় বড় আউটসোর্সাররা তাহলে নানা ধরনের আইটি ফার্ম খুলে কিসের বিনিময়ে ট্রেনিং করানো শুরু করেছে? তারা নিজেরাও তো প্রফিট করে অনলাইন থেকে।
     কারও পরিশ্রমের মুল্য দিতে শেখা উচিত সবারই। তা না হলে আপনি আশা করেন ফরেক্স থেকে হাজার হাজার, লাখ লাখ টাকা কামাবেন, আর ভালো কোথাও থেকে শিখার চেষ্ঠা করবেন না। সরকারী রিলিফ ফান্ডের মত ফ্রী ফ্রি হাতড়ে বেড়াবেন। তাহলে এক্ষেত্রে শুধু আপনি কেন, কোন অবলা শিশুও এক কথায় বলে দেবে, আপনাকে দ্বারা ফরেক্স শেখা কখনোই সম্ভব হবে না। 
    এখানে একটা বিষয় লক্ষ্যনীয় যে, আপনি যার কাছে শিখতে যাচ্ছেন, উনি নিজে ফরেক্স ভালোভাবে বোঝেন তো? বর্তমানে এটা নিয়ে ব্যপক প্রতারণা শুরু হয়েছে। কিছু কিছু লাওক আছে, যারা ট্রেড করে লস করে বলে এসব ধান্দাবাজী করে যা পায় তাই দিয়ে চলার চেষ্টা করে। এদের থেকে সবারই সাবধান থাকা আশু প্রয়োজন। 
    আবার অনেকেই আছে যারা ফরেক্স কে টাকার গাছ মনে করে ট্রেড করা শুরু করে। কিন্তু লস খেয়ে উলটা পালটা বকতে থাকে। যারা ফরেক্স করে প্রফিট করছে তারা কেন বিল গেটস হচ্ছেনা ইত্যাদি ইত্যাদি। তাদের বলি, ভাই ফরেক্স টাকার কল নয়। এটা একটা ব্যাবসা। হতে পারে এটা কারেন্সীর ব্যবসা। সুতরাং ফরেক্স কেন, যেকোন ব্যাবসায় টানা প্রফিট করলে আপনিও বিল গেটস হতে পারবেন। এর মাঝে ফরেক্স কে টানার দরকার কি? 


    একটা কথা মন দিয়ে জেনে রাখবেন, ফরেক্স অন্যান্য ব্যবসার মত একটা ব্যবসা। সুতরাং অন্য কোন ব্যবসা কতে যেমনটি আপনাকে করতেই হতো ঠিক তেমনই সুনির্দিষ্ট টার্গেট নিয়ে আপনার ট্রেডিং প্লান সাজান। এরপর ধীরে ধীরে এগোতে থাকেন। বিভিন্ন জায়গা থেকে নানান ধরনের স্ট্র্যাটেজী, ইনফরমেশান জোগাড় করে সেগুলো নিয়ে প্র্যাকটিস করতে থাকুন। একসময় মার্কেট আপনার কাছেও সহজ হয়ে আসবে। 
    আপনার পছন্দের কোন স্ট্র্যাটেজী নিয়ে প্র্যাকটিস করতে থাকুন। অন্যের কোন স্ট্যাটেজীর দিকে ভুকেও তাকাবেন না। মনে রাখবেন সকল স্ট্র্যাটেজীই ভালো যদি আপনি তাতে ভালোভাবে লেগে থাকেন। দেখবেন, আপনিও প্রফিট করা শুরু করে দিয়েছেন। একসময় আপনিও সফল হবেন।

    আর মনে রাখবেন, সফল হওয়া মানেই বিল গেটস হয়ে যাওয়া নয়। আগে নিজের কর্মক্ষেত্র চিনুন। তারপর আপনি নিজের অবস্থান ঠিকই জানতে পারবেন। সবাইকে ধন্যবাদ।
    ফেসবুকে আমিঃ https://www.facebook.com/otonu.shagor
     
  16. Abu Monsur liked a post in a topic by অতনু সাগর in ফরেক্স মার্কেট ও আমার ব্যক্তিগত আভিজ্ঞতা   
    ছোটবেলা থেকেই আমি প্রচন্ড রকমের একজন স্বপ্নবাজ মানুষ। কোন কাজ শুরু করবার আগে সেই কাজকে ঘিরে বিশাল বিশাল সব স্বপ্ন দেখতাম। জীবনে নানান ধরনের কাজ করার চেষ্ঠা করেছি, সকল কাজেই আমার মনোনিবেশ করার চেষ্ঠা করেছি। ধরে রাখতে পারিনি। কোন না কোন কারন এসে আমার কাজের গতি থামিয়ে দিত। ফলাফল কখনই ভালো হতো না। কাজগুলোর সফলতার আশে পাশেও যেতে পারতাম না। স্বপ্নগুলোও অধরা থেকে যেত প্রতিনিয়ত।
    এরপর একসময় আসলাম অনলাইন জগতে। SEO নিয়ে শুরু করলাম আমার যাত্রা। মোটামুটি আয়ত্ত করে ফেললাম ব্যাকলিঙ্কের কাজগুলো। একসময় আগ্রহ হারিয়ে ফেললাম এখানেও।
    বায়ারের কথা আর কাজের কোন মিল পাচ্ছিলাম না। আর রাত জেগে কাজ করতে থাকার ফলে আমার পড়াশোনাও খারাপ হতে শুরু করল। তখন এটাও বাদ দিয়ে পড়াশোনায় মনোযোগ দিলাম। 
    এর ফাঁকে একসময় পরিচিত হলাম আর্টিকেল রাইটিং জগতের সঙ্গে।
    লেখালেখির অভ্যাস আগে থেকেই ছিল বলে এখানে বেশ ভালো করা শুরু করলাম। এর মধ্যে ইতালিয়ান এক বায়ারের ২০০০ ডলারের প্রজেক্টেও কাজ করা শেষ করে ফেলেছি।
    এই কাজেও আমার আগ্রহ হারালাম সেদিন যখন বায়ার আমাকে অযাচিতভাবে অপমান করল। অথচ দোষ আমার ছিলনা কিছুতেই। আমি আমার আশেপাশের কিছু ছোট ভাইদের আমার আর্টিকেল লিখার কাজে নিয়োগ দিলাম। কিন্ত তাদের লেখা দিনে দিনে এতোই খারাপ হতে থাকল যে বায়ারের চাপও বাড়তে থাকল। আমি তাদের আরও যত্নশীল হতে বলার পরও তারা যেন আরও খারাপ করতে থাকল লেখার কোয়ালিটিতে। তাদের প্লাগারিজম, গ্রামার সব দিক দিয়েই ভুল বাড়তে থাকল। একসময় বায়ার আমার উপর অসুন্তষ্ট হয়ে গেল। আমি এটা বুঝে আবার নিজেই লেখা শুরু করতে থাকলাম।
    কিন্তু বায়ারের কি যে হল বুঝলাম না। আমার নির্ভুল লেখাগুলোও কপি পেস্ট বলা শুরু করল, আমার ১০০% প্লাগারিজম ফ্রী লেখাগুলোকেও আটকে দিতে শুরু করল। এর ফাঁকে কাজের পেমেন্টও দিতে গড়িমসি শুরু করল। যদিও আমি তার কাছে আমার ভুলগুলো স্বীকার করেছিলাম। তার কাছে এটাও বলেছিলাম যে আমি কাউকে দিয়ে আর আর্টিকেল লেখাবনা। 
    এর পরেও একের পর এক অসুবিধাজনক আচরন করা শুরু করল। একদিন আমি ক্লিয়ার করে এসবের কারন জানতে চাইলে উনি আমায় বললেন, বাংলাদেশীদের দিয়ে কিছুই করা যায় না। এর থেকে ইন্ডিয়ানরা ভাল। অনেক সিনসিয়ার হয়ে কাজ করে। 
    এবার বুঝলাম উনার সমস্যা। উনি আমার থেকেও সস্তা দরের কোন রাইটার পেয়েছেন। তাই আর কিছুই বললামনা। বাই বলে তার সাথে কাজ করা ছেড়ে দিলাম। 
    এর ফাকে একটু একটু পরিচয় হল ফরেক্স এর সাথে। যার মাধ্যমে পরিচয় উনি আমার থেকে ১৫ হাজার টাকাই নিলেন শুধু। কাজের কিছুই শেখালেন না। একদিন দেক্ষলাম উনি নিজেই লস করেন নিয়মিত। একসময় উনাকেও ছাড়তে হল। তবে আমি এটা বুঝেছিলাম যে এই ফরেক্স মার্কেটে বায়ারের কোন ঝামেলা নেই। কর্মক্ষেত্র সবসময় রেডী। শুধু আমাকে কস্ট করে কাজ শিখতে হবে।
    এবার ফরেক্স নিয়ে শুরু করলাম। আর্টিকেল লেখা নিয়ে আমার স্বপ্নও ঝাপসা হতে শুরু করল। অনলাইন থেকে ফরেক্স এর অনেক আর্টিকেল পড়া শুরু করলাম। ধীরে ধীরে আকর্ষন বাড়তে থাকল। এরপর আরেকজনের সাক্ষাত পেলাম, উনি ৮০০০ টাকা নিয়ে নিলেন কাজ শেখাবেন বলে। কিন্তু উনি আমায় বেসিকের কিছু ফাইল দিয়ে ৫০০ ডলার ইনভেস্ট করতে বলেন। বলেন ইনভেস্ট না করলে প্রফিট করা যাবেনা।
    এমন আরও অনেকের কাছে ঘোরাঘুরি শেষে যখন হতাশা ঘিরে ধরছিল প্রায়, এমন সময় ফেসবুকে পরিচিত হলাম ওলিদ নামের এক ভাইয়ের সঙ্গে। উনি আরব আমিরাতের ছিলেন। উনার কাছে থেকে খবর পেলাম নো ডিপোজিট বোনাস, ফোরাম পোস্টিং এমন সব আইডিয়া। উনার গাইডলাইন অনুযায়ী কাজ করা শুরু করলাম। উনার হাত ধরেই শিখলাম সাপোর্ট রেসিস্ট্যান্স, পিভট, চ্যানেল, ট্রেন্ড লাইন, ক্যান্ডল প্যাটার্ন ইত্যাদি। 
    আর এসবের সব কিছু শিখলাম অনলাইনে। এর মাঝে এক সড়ক দুর্ঘটনায় ওলিদ ভাইয়ের মৃত্যুর খবরও পেলাম। আমি হারালাম আমার ফরেক্স গুরু কে। আমার ফরেক্স জগতের এক একমাত্র অলিদ ভাইকেই বিশ্বাস করতাম। 
    এরপর শুরু হল নিজে নিজে করে এনালাইসিস করা। ওলিদ ভাইয়ের দেখানো স্ট্র্যাটেজীতে এনালাইসি করা শুরু করলাম। প্রথম প্রথমে অনেক সমস্যা হচ্ছিল মার্কেট বুঝতে। ধীরে ধীরে কাটিয়ে উঠতে লাগলাম তা। 
    এর মাঝে পরিচয় হল অনেক ট্রেডারদের সাথে। কেউ আসলেই ভালো প্রফিট করছে, আবার কেউ ফাঁকা বুলি আউড়িয়ে নিজেকে বড় করবার ধান্দায় মেতে আছে। এরা নানান ধরনের পেইড গ্রুপ খুলে ফরেক্স শেখাবার নামে ধান্দাবাজী করছে। অনেকে আবার প্রকৃতই ফরেক্স শেখানোর কাজ করছে। যারা প্রকৃত ফরেক্স শেখাচ্ছে এরা কখনই কোন লোভনীয় প্রস্তাব আপনাকে দেবেনা। এরা আপনাকে ফরেক্স এর প্রকৃত দিকটা তুলে ধরার চেষ্ঠা করবে। 
    আজ আমি আমার অধরা স্বপ্নগুলোর পুরণ করা শুরু করেছি। আর এর সব কিছুই আমাকে ফরেক্স দিতে শুরু করেছে। আমি জানি মহান আল্লাহ রহমত করলে আমার সবগুলো স্বপ্নই পুরন হতে থাকবে। ফরেক্স এমনই এক মার্কেট যা চাইলে সবই পারে।
    বুঝতেই পারলাম না দেখতে দেখতে কখন ৬ টি বছর পার হয়ে গেল। এর মাঝে কত ফরেক্স পন্ডিত গেলো এলো .................... আমি আমিই থাকলাম। আরও যেন ভাল করতে পারি, এজন্য সকলের দোয়া চাই। সবাই ভালো থাকবেন।
    অফটপিকঃ
    আমার পরিচিত সকল ফরেক্স ট্রেডারদের নিয়ে তৈরী করা আমার নিজস্ব একটা কমিউনিটি আছে, যেখানে আমি আমার এনালাইসিস, ট্রেড এন্ট্রি পয়েন্ট শেয়ার করে থাকি। আপনি চাইলে আমার ট্রেডার কমিউনিটিতে যোগ দিতে পারেন। তবে এটা একান্তই আপনার ব্যক্তিগত বিষয়। (এখানে নামকাওয়াস্তে এক শর্ত প্রযোজ্য!!!) এ বিষয়ে জানতে আগ্রহী হলে সরাসরি আমায় নক করুন। 
    ফেসবুকে আমিঃ https://www.facebook.com/otonu.shagor
    স্কাইপীতে আমিঃ otonu.shagor
    আমার নিজস্ব এনালাইটিক্যাল পারফর্মার পেজঃ https://www.facebook.com/bestforexxm
    সবাই ভালো থাকুন, সবাই ভালো ট্রেড করুন।
    আর পরিশেষে আমার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ্‌ হাফেয।
     
  17. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in ফরেক্স ব্রোকার স্ক্যাম, রেগুলেশন এবং প্রতিকার।   
    ট্রেড শুরু করার আগে অনেকেই একটি বিষয় নিয়ে খুব দুশ্চিন্তার মধ্যে পড়ে যায় তা হল কোন ব্রোকারে ট্রেড শুরু করবেন, কার ট্রান্সেকশন কত ভালো , টাকার নিরাপত্তা কি? এইগুলো ছাড়া ও আপনি অনেকভাবে স্ক্যাম এর স্বীকার হতে পারেন। যা হয়ত কখনোই আপনার চোখে পড়বে না, কিংবা আপনি বুঝতেই পারবেন না কিভাবে ব্রোকার স্ক্যাম করে। তাই বিষটি অনেক গুরুত্তের সাথেই দেখতে হবে এবং জেনে বুঝে ব্রোকার নির্বাচন করতে হবে।  
    সঠিক ব্রোকার নির্বাচন নিয়ে আগেও আমি পোস্ট করেছি, আবারো আরো কিছু তথ্য নিয়ে ব্রোকার সম্পর্কে লিখতে কারন বিষয়টি আমার কাছে খুব গুররুপুর্ন এবং ট্রেডার হিসেবে আপনিও সেটা বুঝতে পারছেন।
    ব্রোকার স্ক্যামঃ
    যে যত রকম সুবিধার কথা বলুক না কেন ভালো ব্রোকারের পাশাপাশি অনেক স্ক্যাম ব্রোকার ও রয়েছে যা প্রতিনিয়ত মনিটরিং বোর্ড নিয়ন্ত্রণ করছে এবং ব্ল্যাক লিস্টেট হচ্ছে, কিন্তু তারপর ও আপনার ব্যাক্তিগত সাবধানতার প্রয়োজন আছে। একটি বিষয় আমরা অনেক ক্ষেত্রেই ব্রোকার নির্বাচনে খুব বেশি নরজে নেই না তা হল, স্প্রেড সিস্টেম। সাধারণভাবে মেজর কারেন্সিতে স্প্রেড থাকে ২-৩ পিপস। কিন্তু স্ক্যাম ব্রোকারের প্রথম ফাঁদ হচ্ছে আস্ক/বিড স্প্রেড মেনুপুলেশন। যেখানে তারা ৭-৮ পিপস পর্যন্ত স্প্রেড সেট করে সুযোগ তৈরি করে। আর ৭-৮ পিপ্স বাদ দিয়ে আপনার প্রফিট কতটুকু আপনার অনুকুলে থাকবে তা ভালোই বুঝতে পারছেন। তবে এইসব ক্ষেত্রে রেগুলেটর বোর্ড এই রকম অনেক ব্রোকারকে ক্র্যাক করেছে।
    ব্রোকার রেগুলেশন এর ক্ষেত্রে সাধারণত দুটি বোর্ড ব্রোকারকে অথোরাইজ করে থাকে,
    U.S. Regulatory Agencies Foreign Regulatory Agencies  ব্রোকার নির্বাচনের ক্ষেত্রে আপনাকে উপরোক্ত অথোরিটি দ্বারা রেজিস্টার্ড ব্রোকার পছন্দ করতে হবে ট্রেডের ক্ষেত্রে। এই দুটি বোর্ড সব সময় ফ্রড এবং স্ক্যাম ব্রোকার কে খুজে বের করে তাদের কে ক্র্যাক করে থাকে। তবে, এটাও সত্যি যে আপনার পক্ষে রেগুলেটেড এবং আনরেগুলেটেড এর পার্থক্য বের করাটাও অনেক কঠিন একটা ব্যাপার। আমাদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হল যে রেগুলেটেড অথোরিটি সময় এবং বাজারের অবস্থার উপর ভিত্তি করে দরকার হলে কিছু নিতিমালার পরিবর্তন আনে যে গুলোর সাথে অনেক ব্রোকারই আপডেট থাকে না, আর যার কারন ব্রোকার আগের পলিসিতে কোন রকম স্ক্যাম করলে আপনার আর ক্ল্যাম করার কোন সুযোগ থাকে না।
    U.S. Regulatory Agencies
    এই রেগুলেশন বোর্ডের দুটি অথোরিটি হচ্ছে,
    Commodities Futures Trade Commission (CFTC)
    ব্রোকারের প্রথম রেগুলেশন হল CFTC এর অনুমোদ্ন। ১৯৭৪ সালে গঠিত এই বোর্ডটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, ফিউচার কমোডিটি মার্কেট তথা কারেন্সি মার্কেট সঠিকভাবে পরিচালনার নিতিনির্ধারক ফোরাম হিসেবে। এই প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য হচ্ছে ব্রোকার স্ক্যাম এবং ফ্রড থেকে ট্রেডারকে রক্ষা করা। তাই এই অথোরিটির অনুমোদনের মাধ্যমে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে আপনি সঠিক ব্রোকারে আছেন। আপনি চাইলে এই অথরিটির অফিসিয়াল অয়েব সাইটের মাধ্যমে সঠিক ব্রোকার লিস্ট দেখতে পারেনঃ  http://www.cftc.gov/index.htm

     এবং আপনার যদি কোন ব্রোকার সম্পর্কে কোন কমপ্লেন থাকে তাও জানাতে পারেনঃ http://www.cftc.gov/consumerprotection/redressreparations/index.htm
    National Futures Association (NFA)
    একই উদ্দেশ্যে এই বোর্ডটি প্রতিষ্ঠিত ১৯৮২ সালে, CFTC বোর্ডকে ব্রোকার বিগ ব্রাদার বলা হয়ে থাকে। আর NFA কে সেই হিসেবে লিটল বিগ ব্রাদার বলা হয়ে থাকে কারন CFTC এর তত্ত্বাবধানে NFA তার কার্যবিধি চালিয়ে থাকে। NFA মুলত ইন্ডাস্টি বিস্তৃত এবং ব্যাক্তিগতভাবে চালিত প্রতিষ্ঠানের রেগুলেশন নিয়ে কাজ করে। তাই এই দুটি অথরিটির রেগুলেশন আর মাধ্যমে সঠিক ব্রোকার নির্বাচনে আপনার কোন জটিলতা থাকে না।
    এই বোর্ড দ্বারা অনুমোদিত ব্রোকার সম্পর্কে জানতে পারেন আপনি তাদের অফিসিয়াল সাইট থেকেঃ http://www.nfa.futures.org/basicnet/

     USA এর বাইরের বেশিরভাগ ব্রোকার CFTC, USA রেগুলেশন নিয়ে অথোরাইড হয় না, তারা CFTC , NFA ছাড়াও অন্য কিছু  Foreign Regulatory Agencies এর মাধ্যমে রেগেলেটেড হয়ে থাকে।
    আগামি দিন আলোচনা করব ফরেন রেগুলেটরি এজেন্সি নিয়ে।
  18. Abu Monsur liked a post in a topic by Mhafiz™ in পিপস হ্যাকিং - With Best Candlestick Pattern   


    View File পিপস হ্যাকিং - With Best Candlestick Pattern
    বিডিফরেক্সপ্রো'র আরেকটি নতুন সংযোজন সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় লিখিত 'পিপস হ্যাকিং উইথ বেস্ট ক্যান্ডেলস্টিক প্যাটার্ন'। ফরেক্স ট্রেডিং এর একটি কার্যকারী এবং জনপ্রিয় স্ট্রেটিজি হচ্ছে ক্যান্ডেলস্টিক এনালাইসিস, আর ক্যান্ডেলস্টিক প্যাটার্ন রয়েছে শত শত। সব গুলো প্যাটার্ন একজন ট্রেডারের পক্ষে মনে রেখে ট্রেড করাটা অসম্ভব ব্যাপার। আর এই বিষয়টি নজরে নিয়ে উক্ত বইটি সাজানো হয়েছে বিশেষ কিছু প্যাটার্ন এর মাধ্যমে যা ভালো ট্রেডিং এর জন্য অনেক বেশি সহায়ক।

    আশা করছি ক্যান্ডেলস্টিক ট্রেডিং এ আপনার ট্রেড কে আরো সাবলীল করতে বইটি একটি দারুন ভুমিকা রাখবে সেই কামনায় ... ... ... বিডিফরেক্সপ্রো.
    Submitter জয়™ Submitted 06/07/2015 Category ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস Page 27 Trader Level Begginer to Advanced