Jump to content

Bdforexpro - ফরেক্স সংক্রান্ত আলোচনা,ফরেক্স শিক্ষা, ফরেক্স ট্রেডিং এবং এনালাইসিসের উন্মক্ত এবং অনন্য স্থান। এই ফোরামে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ ফ্রী। পোস্ট এর পূর্বে অনুগ্রহ করে ফোরাম নিতিমালা গুলো পড়ে, বুঝে পোস্ট করুন। ধন্যবাদ;

Search the Community

Showing results for tags 'bollinger bands trading'.

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


  • সাধারণ ফরেক্স সহায়তা
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা, ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, নিউজ এবং সিগন্যাল সম্পর্কিত
    • নিউজ, সিগনাল ও এনালাইসিস
    • প্রশ্ন ও উত্তর
    • ট্রেডিং স্ট্রেটিজি
    • ফরেক্স স্টাডি
    • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • ট্রেডিং সফটওয়্যার - মেটাট্রেডার, সি-ট্রেডার, ওয়েবট্রেডার
    • ফোরাম ও পোর্টাল সহায়তা
    • ফরেক্স ব্রোকার
  • ফরেক্স ব্রোকার সম্পর্কিত
  • বিজ্ঞাপন
  • অফ-টপিক

Categories

  • সাধারণ ফরেক্স বই
  • টেকনিক্যাল এনালাইসিস
  • ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস
  • ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস
  • ইনডিকেটর

Find results in...

Find results that contain...


Date Created

  • Start

    End


Last Updated

  • Start

    End


Filter by number of...

Joined

  • Start

    End


Group


ওয়েবসাইট URL


ইয়াহু(Yahoo)


স্কাইপ(Skype)


মোবাইল নং


ঠিকানা


ইচ্ছা/আগ্রহ/শখ


ব্রোকার নেইম


ট্রেড অভিজ্ঞতা

Found 2 results

  1. বলিঙ্গার বেন্ড এর ধারাবাহিক আলোচনায় আপনাদেরকে আবারো স্বাগতম। প্রত্যেক পোস্ট এর পূর্বে আমি একটি কথা বলে নেয় সেটা হচ্ছে যেহেতু ধারাবাহিক পোস্ট তাই আগের পর্ব গুলো পড়ে নেওয়া। এতে করে আপনি একটি ডিসিপ্লিন এ থাকবেন। যাহোক আজকের পর্বে আলোচনা করবো বলিঙ্গার বেন্ডস স্কেল্পিং ট্রেডিং সম্পর্কে। যারা নিয়মিত ট্রেড করেন তারা আশা করি জানেন যে স্কেল্পিং কি, সংক্ষেপে একটু বলে নিচ্ছি, স্কেল্পিং হল অনেকটা শর্ট টাইম বেসিস সুবিধাভোগী ট্রেড, যেমন ১-২ মিনিট সময় স্থায়িত্তের কিংবা সর্বচ্চো ৫ মিনিট সময় ব্যাপ্তি মার্কেট এর ভিবিন্ন স্কেলে যেসব ট্রেড হয় তাই হল স্কেল্পিং। অনেক অনেক স্ট্রেটিজি এবং টুলস এর মাধ্যমে স্কেল্পিং করা যায়, আমি আলোচনা করবো বলিঙ্গার বেন্ড দিয়ে কিভাবে স্কেল্পিং হতে পারে। এই মেথডটি খুব সিম্পল এবং সহজ তাই এইখানে বেশি আলোচনা করব না, স্ট্রেটিজিটির জন্য মুলত আপনার প্রয়োজন একটি চার্ট সেটিং যার মাধ্যমে আপনার ট্রেডগুলো হবে, তবে আরেকটি বিষয়টি মাথায় রাখবেন স্কেল্পিং ট্রেড যেমন অনেক প্রফিটেবল তেমনি অনেকটা রিস্কি বটে তাই সাবধান থাকবেন। এবং আরো মাথায় রাখবেন আপনার প্রতিটি ট্রেড কিন্তু সফল হবে না যেমন ধরুন ৫টি ট্রেড করলেন এই পদ্ধতিতে তারমধ্যে ১ বা ২ টি ট্রেড লস হতে পারে। ভালো অভিজ্ঞতা নিয়ে করলে হয়ত ১টির বেশি ট্রেড লস হবে না। বেন্ড রেঞ্জ ঢালু এরিয়া (Slope) থেকে যখন প্রাইস আপ হয় তখন বায় ট্রেড আর যখন বেন্ড এরিয়ার দিকে প্রাইস ডাউন হয় তখন সেল ট্রেড করতে হয়, আসুন কিভাবে তা করতে হয় ভালোভাবে দেখি। আমার মতে স্কেল্পিং ট্রেডার জন্য সবচেয়ে ভালো কারেন্সি হল EUR/USD & GBP/USD. আরেকটি বিষয় মনে রাখবে নিউজ আওয়ারে স্কেল্পিং ট্রেড না করাই ভালো। চার্ট সেটআপঃ কারেন্সি পেয়ারঃ EUR/USD, GBP/USD ট্রেডিং সেশনঃ London টাইমফ্রেমঃ ৫ মিনিট ট্রেডিং রুলসঃ লং ট্রেড বলিঙ্গার বেন্ড অবশ্যই আপ ট্রেন্ডি (Slope up) হতে হবে;প্রাইস যখন উপর থেকে বলিঙ্গার মিডল বেন্ড টাচ করবে তখন বায় অর্ডার করুন;১৫ পিপস স্টপ লস সেট করুন;আপার বেন্ড পর্যন্ত টেইক প্রফিট নিন; ট্রেডিং রুলসঃ শর্ট ট্রেড বলিঙ্গার বেন্ড অবশ্যই ডাউন ট্রেন্ডি (Slope Down) হতে হবে;প্রাইস যখন নিচ থেকে বলিঙ্গার মিডল বেন্ড টাচ করবে তখন সেল ট্রেড অর্ডার করুন;১৫ পিপস স্টপ লস সেট করুন;লাওয়ার বেন্ড পর্যন্ত টেইক প্রফিট নিন; এই পদ্ধতিটি অবশ্যই আগে ডেমোতে অনুশীলন করবেন কারন স্ট্রেটিজিটি আপনি আপনার মত করে ব্যাবহার করবেন কিছু ডেমো ট্রেড করলে বিষয়টি বাস্তবিকভাবে আরো কি পরিবর্তন হওয়ার দরকার নিজেই বুঝে যাবেন তারপর লাইভ ট্রেডে যাবেন। আসুন এইবার ছবিটি বিশ্লেষণ করি, ট্রেড ১; Slope up ট্রেন্ডে প্রথম ট্রেডটি বায় করা হয়েছে ১.৩৯৮১ মিডল বেন্ড থেকে স্টপ লস লাওয়ার বেন্ড অর্থাৎ ১৫ পিপস ছিল ট্রেডটি ক্লোজ করা হয়েছে ১.৩৯৯৯ প্রাইসে, ১৮ পিপস প্রফিট; ট্রেড ২; Slope Down ট্রেন্ডে ২য় ট্রেডটি সেল অর্ডার করা হয়েছে ১.৩৯৮৬ মিডল বেন্ড থেকে স্টপ লস আপার বেন্ড অর্থাৎ ১৫ পিপস ছিল ট্রেডটি ক্লোজ করা হয়েছে ১.৩৯৭১ প্রাইসে, ১৫ পিপস প্রফিট; এইভাবে মোট ৬ টি ট্রেড করা হয়েছে যারমধ্যে লস ছিল ১টি ট্রেড , মোট ৭০+ পিপস প্রফিট হয়েছে। পদ্ধতিটি খুবই সহজ, ভালো অনুশীলন আর মাধ্যমে প্রফিট করে নিতে পারেন সহজে ।
  2. বলিঙ্গার বেন্ড (Bollinger Band) A-Z ফরেক্স এক্সপার্ট ট্রেডিং – ( পোস্ট পর্ব - ১ )বলিঙ্গার বাউন্স - নিশ্চিত প্রফিট (Bolinger Bounce) A-Z ফরেক্স এক্সপার্ট ট্রেডিং – ( পোস্ট পর্ব ২ ) আবারো বলে নিচ্ছি, যারা বলিঙ্গার এক্সপার্ট হতে চান, আপনাদের উদ্দেশে বলছি অনুগ্রহ করে ধারাবাহিক পোস্ট ১ থেকে শুরু করুন তাতে করে একটি সঠিক গাইড লাইন এবং সুফল প্রয়োগ পাবেন। যাহোক আজকে আলোচনা করব, বলিঙ্গার ব্রেক ট্রেডিং নিয়ে, যদি ও খন্ড খন্ড আলোচনায় বলিঙ্গার ব্রেক ট্রেডিং নিয়ে আগেও আলোচনা করেছি, তারপর ও ধারাবাহিক পোস্ট এর স্বার্থে আবারো আরো বিস্তারিতভাবে কাভার করার চেস্টা করছি। বলিঙ্গার ব্রেক স্ট্রেটিজিটি মোটামুটি যারা ট্রেড শুরু করেন তারা প্রত্যেকই প্রথম দিকেই জেনে যান কারন এই স্ট্রেটিজিটি একটি বহুল প্রচলিত সফল একটি স্ট্রেটিজি। তাই আজকের এই আলোচনায় চেস্টা করবো বলিঙ্গার ব্রেক ট্রেডিং কে আরো মজবুত এবং শক্তিশালি রুপে উপহার দিতে। যখন একটি স্কুইজ, নেরো, ফ্ল্যাট, সমতল ট্রেন্ড থেকে মার্কেট নতুন রুপে যে কোন একটি দিকে বাক নিয়ে যেতে থাকে তাকেই বলিঙ্গার ব্রেক বলে। তাই কখন মার্কেট বাক/ব্রেক নিবে, বা কতখন স্কুইজ অবস্থানে অটল থাকবে ইত্যাদি জেনে বুঝে ট্রেডে পা দিতে হবে। মনে রাখবেন বলিঙ্গার বেন্ড এর প্রতিটি অবস্থান থেকে ট্রেড করা সম্ভব তাই যখন যে অবস্থানে বলিঙ্গার বেন্ড দেখবেন সেখান থেকে ট্রেড তৈরি করতে হবে স্ব-স্ব স্ট্রটিজিতে। বলিঙ্গার যখন রেঞ্জ বাউন্ড করে তখন ট্রেড করলেন আবার যখন স্কুইক হয়ে নতুন ট্রেন্ডে বাক নেই তখন ও ট্রেড করতে পারেন। RSI ও ক্যান্ডেলস্টিক প্যাটার্ন বলিঙ্গার ব্রেকআউটঃ স্বাভাবিকভাবে যখন বলিঙ্গার স্কুইজ থেকে ক্যান্ডেলস্টিক মিডল বলিঙ্গার এর উপর থেকে আপার বলিঙ্গারকে ক্রস করে বাক তৈরি করে তখন বায় ব্রেকআউট ট্রেড করা হয়, আবার বিপরীতভাবে মিডল বলিঙ্গার এর নিচে লাওয়ার বলিঙ্গারকে ক্রস করে বাক তৈরি করলে সেল ব্রেকআউট ট্রেড হয়। তবে এই পদ্ধতিতে কিছুটা মিসগাইড হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায় অনেক ক্ষেত্রে, তাই কিছু ইন্ডিকেটর এর সাহায্য ব্রেকআউটকে আরো নিশ্চিত করে ট্রেডে ঢুকতে পারেন। Bullish Bollinger break: একটি সংকচিত মার্কেট এর পরে যখন প্রাইস ব্রেক করে আপার বলিঙ্গারকে পয়েন্ট করে উপরের দিকে প্রসারিত হয় আবার লাওয়ার বলিঙ্গার নিচের দিকে প্রসারিত হয় তখন তাকে বুলিশ বলিঙ্গার ব্রেকআউট বলে। বুলিশ বলিঙ্গার ট্রেডে এন্টার করতে নিচের পলিসিগুলো ব্যাবহার করতে পারেন। Buy Entry Conditions: কারেন্সি আপট্রেন্ডে অবস্থান করছে বা রয়েছে।মার্কেট স্কুইক পজিশনে রয়েছে।প্রাইস আপার বেন্ডকে টাচ করেছেব্রেকআউট বায় ক্যন্ডেল্টি আগের ক্যান্ডেল এর চেয়ে হাই প্রাইস পজিশনে রয়েছে। RSI লেভেল ৩০-৫০ বা রাইজিং রয়েছে। Buy Trade Exit Conditions: বলিঙ্গার মিডল বেন্ড এর ২০ পিপস নিচে বা ৫০-৭০ পিপস নিচে Stop Loss সেট করুন;১০০-১৫০ পিপস Take Profit সেট করে দিন; উপরের চিত্রে খেয়াল করুন, ৫ টি ক্যান্ডেল এর একটি স্কুইজ পজিশন থেকে একটি বায় ক্যান্ডেল এর মাধ্যমে প্রাইস আপার বলিঙ্গারকে টাচ করে বলিঙ্গার স্কুইজ থেকে আপার বলিঙ্গার আপ পয়েন্টিং এবং লাওয়ার বলিঙ্গার ডাউন পয়েন্টিং এর মাধ্যমে প্রসারিত হয়েছে। RSI লেভেল ৫০ এর উপরে অবস্থান তাই এই ডিরেকশনে বায় ট্রেড করে নিয়ে নিতে পারেন অনেক প্রফিট; Bearish Bollinger break: ঠিক বুলিশ ব্রেকআউটের বিপরীত, একটি সংকচিত মার্কেট এর পরে যখন প্রাইস ব্রেক করে লওয়ার বলিঙ্গারকে পয়েন্ট করে নিচের দিকে প্রসারিত হয় আবার আপার বলিঙ্গার উপরের দিকে প্রসারিত হয় তখন তাকে বেয়ারিশ বলিঙ্গার ব্রেকআউট বলে। বেয়ারিশ বলিঙ্গার ট্রেডে এন্টার করতে নিচের পলিসিগুলো ব্যাবহার করতে পারেন। Sale Entry Conditions: কারেন্সি ডাউনট্রেন্ডে অবস্থান করছে।মার্কেট স্কুইক পজিশনে রয়েছে।প্রাইস লওয়ার বেন্ডকে টাচ করেছে।ব্রেকআউট সেল ক্যান্ডেল্টি আগের ক্যান্ডেল এর চেয়ে লাওয়ার পজিশনে রয়েছে। RSI লেভেল ৫০-৮০ বা ফলিং রয়েছে। Sale Trade Exit Conditions: বলিঙ্গার মিডল বেন্ড এর ২০ পিপস উপরে বা ৫০-৭০ পিপস Stop Loss সেট করুন;১০০-১৫০ পিপস Take Profit সেট করে দিন;
×
×
  • Create New...