Search the Community

Showing results for tags 'success trading strategy'.



More search options

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


  • সাধারণ ফরেক্স সহায়তা
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা, ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, নিউজ এবং সিগন্যাল সম্পর্কিত
    • ফোরাম ও পোর্টাল সহায়তা
    • সাধারণ ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • নিউজ, সিগনাল ও এনালাইসিস
    • প্রশ্ন ও উত্তর
    • ট্রেডিং স্ট্রেটিজি
    • ফরেক্স স্টাডি
  • বিজ্ঞাপন
    • কমার্শিয়াল কন্টেন্ট
    • ক্রয়-বিক্রয়-এক্সচেঞ্জ
  • ট্রেডিং সফটওয়্যার (প্লাটফর্ম-মেটা ট্রেডার)
    • ইন্ডিকেটর
    • অটোট্রেডিং
    • মেটাট্রেডার ৪, ৫
  • ফরেক্স ব্রোকার সম্পর্কিত
    • ফরেক্স ব্রোকার
    • ফরেক্স অফার
    • পেইমেন্ট মেথড
  • অফ-টপিক

Categories

  • সাধারণ ফরেক্স বই
  • টেকনিক্যাল এনালাইসিস
  • ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস
  • ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস
  • ইনডিকেটর

Group


ওয়েবসাইট URL


ইয়াহু(Yahoo)


স্কাইপ(Skype)


ঠিকানা


ইচ্ছা/আগ্রহ/শখ

Found 2 results

  1. Winner ইন্ডিকেটর দিয়ে প্রফিটেবল ট্রেডিং স্ট্রেটেজি। ট্রেডপ্রিয় বন্ধুরা, আমি যখনই আমার মনের মত সফল কোনো ট্রেডিং স্ট্রেটেজি পেয়ে থাকি তখনই চেষ্টা করি আপনাদের সাথে শেয়ার করতে। হ্যাঁ আজও ঠিক তাই – কিছুদিন আগে একজন ভাল ট্রেডারের মাধ্যমে তার ব্যবহৃত একটি ট্রেডিং স্ট্রেটেজি পেয়েছি, যার দ্বারা ওই ট্রেডার ৭০-৯০ভাগ সময়ই প্রফিট করে থাকেন আর সবচেয়ে বেশী অবাক হলাম এটা শুনে যে ওই ট্রেডার নাকি প্রায় তিন বছর ধরে এই নরমাল স্ট্রেটেজি দিয়েই ট্রেড করে যাচ্ছেন এবং সফলভাবেই ট্রেড করছেন। তাই আমি তার স্ট্রেটেজিটা কিছুদিন আগে থেকে ডেমো-তে ট্রাই করা শুরু করি, দেখলাম যে তার কথা মিথ্যা নয়, তাই ভাবলাম স্ট্রেটেজিটা আপনাদের সাথে শেয়ার করি যদি আপনাদের উপকারে আসে। তাহলে আসুন জেনে নেই সহজ সেই স্ট্রেটেজিটিঃ এই সহজ স্ট্রেটেজিতে ট্রেড করার জন্য আপনাকে মুলত Winner নামের একটি কাস্টম ইন্ডিকেটর ব্যবহার করতে হবে আর এই ইন্ডিকেটরটি-ই হল এই স্ট্রেটেজির মূল কান্ডারি এবং তার সাথে Stochastic Oscillator ইন্ডিকেটরটিও রাখতে হবে, এজন্য Stochastic Oscillator এর লেভেল ২০ ও ৮০ ব্যবহার করুন। এই Winner ইন্ডিকেটর দিয়ে যেকোনো টাইমফ্রেমে যেকোনো পেয়ারে ট্রেড করা যাবে, তবে আমার মতে মিনিমাম ১ঘন্টা টাইম ফ্রেম ব্যবহার করলে অনেক বেশী সফলতা পাওয়া যায় যা পরীক্ষিত। Winner ও Stochastic Oscillator দ্বারা ট্রেড চিত্রঃ ট্রেডে এন্ট্রি দেওয়ার নিয়মঃ বাই এন্ট্রি - যখন Winner ইন্ডিকেটর এর সবুজ লাইন লাল লাইন-কে ক্রস করে উপরে যাবে/থাকবে এবং Stochastic Oscillator এর লেভেল ২০এ বা তার নিচে থাকবে তখনই বাই ট্রেড করুন। সেল এন্ট্রি - যখন Winner ইন্ডিকেটর এর লাল লাইন সবুজ লাইন-কে ক্রস করে উপরে যাবে/থাকবে এবং Stochastic Oscillator এর লেভেল ৮০এ বা তার উপরে থাকবে তখন শুধুই সেল ট্রেড করুন। স্টপলস ও টেক প্রফিটের ব্যবহারঃ আমি মনে করি যেকোনো ট্রেডিং স্ট্রেটেজির স্টপলস ও টেক প্রফিটের জন্য নিজের মস্তিস্ক/ট্রেডিংজ্ঞান ব্যবহার করাই শ্রেয়। তারপরও আপনি চাইলে এই স্ট্রেটেজির ক্ষেত্রে- টেকপ্রফিট – এই স্ট্রেটেজিতে বাই ট্রেড এর টেক প্রফিটের ক্ষেত্রে মার্কেট কন্ডিশন Stochastic Oscillator এর লেভেল ৮০ বা তার উপরে/কাছাকছি আর সেল এর ক্ষেত্রে Stochastic Oscillator লেভেল ২০ বা তার নিচে/কাছাকাছি গেলে আপনার ট্রেড যাই প্রফিটে থাকুক ক্লোজ করে দিন। অন্যথায়ঃ ১৫/৩০মিনিটের টাইম ফ্রেমে ঃ ২০-৪০পিপ্স টেক প্রফিট দিন আর অন্যান্য টাইমফ্রেমের ক্ষেত্রে দৈনিক পিভট পয়েন্ট ব্যবহার করুন। স্টপলস - এই স্ট্রেটেজিতে ট্রেড এর স্টপলস এর ক্ষেত্রে আপনি যে টাইমফ্রেমে ট্রেডটি ওপেন করেছেন সে টাইম্ফ্রেমের বিগত হাই/লো রেট এর ৫পিপ্স উপরে/নিচে দিন। বা এ্যনালাইসিস করে সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স দেখে আপনি আপনার মত করে দিন। সতর্কতা ঃ এ স্ট্রেটেজিতে ট্রেড করার সময় নিচের সতর্কতাগুলো অবলম্বন করুন- যখন Winner ও Stochastic Oscillator দুটি ইনডিকেটর-ই ট্রেড করার ডিরেকশন দিবে শুধুমাত্র তখনই ট্রেড করুন, যদি দুটির একটি ইন্ডিকেটর আপনাকে ট্রেড করার সঠিক সিদ্ধান্ত না দেয় তাহলে ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন। হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আওয়ার এ নিউজ পাবলিশ হওয়ার আগে এই স্ট্রেটেজিতে ট্রেড করবেন না। মানি ম্যানেজমেন্ট করে ট্রেড করুন। আগে ডেমোতে ট্রাই করুন, যদি আপনি মনে করেন এ স্ট্রেটেজি দ্বারা আপনি সফল তাহলে লাইভ একাউন্টে প্রয়োগ করুন। কি ভাবছেন? Winner ইন্ডিকেটরটি কোথায় পাবেন? চিন্তার কিছু নেই নিচের লিংক থেকে ডাউনলোড করে নিন। ডাউনলোডগত কোনো সমস্যা হলে অবশ্যই জানাবেন। winner.zip যদিও এই Winner ইন্ডিকেটর স্ট্রেটেজি দ্বারা সকল পেয়ারে ট্রেড করা যাবে, তবে আমি শুধু মেজর পেয়ারগুলোতে ট্রাই করেছি এবং মোটামুটি সফলতাও পেয়েছি। তাই আপনি আগে ডেমোতে আপনার প্রিয় ট্রেডিং পেয়ারে যাচাই করে দেখুন। আশা করি Winner ইন্ডিকেটর স্ট্রেটেজি আপনাকে নিরাস করবে না। ধন্যবাদ। winner.zip
  2. ব্যস্ত বা স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য তিনটি ট্রেডিং কৌশল (প্রথম অংশ)। বন্ধুরা, আপনারা ফরেক্স ট্রেড এ কি রকম সময় ব্যয় করেন বা কিভাবে সময় দেন? কারন আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে বেশীরভাগ ট্রেডারের-ই মূলধনের পরিমান কম। আর স্বল্প মূলধন দ্বারা আপনি ফরেক্স থেকে জীবন ও জীবিকা নির্বাহের অর্থ উপার্জন করতে পারবেন না। তাই আমাদের অধিক ট্রেডারকে-ই ট্রেড এর পাশাপাশি অন্য পেশাকেও বেঁচে নিতে হয়, আর আপনি যদি অন্য পেশায় চাকুরী করেন তাহলেতো সেখানে দৈনিক নুন্যতম ৮-১০ঘন্টার একটা সময় ব্যয় করতে হয়, তাহলে আপনি ট্রেডিং এ কখন কিভাবে সময় দেন? রেগুলার বা প্রোফেশনাল ট্রেডার হলে ট্রেডে দৈনিক ৭-১০ঘন্টা সময় দিতে হয়, আর আপনি যদি অন্য পেশায় চাকুরী করে থাকেন তাহলে আপনার পক্ষে ট্রেডিং এ ৭-১০ঘন্টা সময় দেওয়া কখনো সম্ভব নয় বা আপনি পর্যাপ্ত মূলধনের অভাবে ট্রেডিং এ ও ফুল-টাইম সময় দিতে পারছেন না। আবার অনেকে ভাল ট্রেড করতে পারে কিন্তু অন্য পেশার কারনে ট্রেডিং এ সময় বা মূলধন খাটান না, কারন তিনি ভাবেন যে আমি ট্রেড এ সময় দিতে পারবো না। সত্যিই এটা বিবেচ্য বিষয় যে, আপনি অন্য পেশায় ৮-১০ঘন্টা সময় দিলে ট্রেডিং এ কিভাবে সময় দিবেন! তাই যারা স্বল্প মূলধনের ট্রেডার এবং ফরেক্স এ পূর্ণ সময় ব্যয় করতে পারেন না, আজকের এই প্রয়াস তাদের-ই জন্য। তারা যেন অন্য পেশার পাশাপাশি ফরেক্স ট্রেডিং ও চালিয়ে যেতে পারে এবং ট্রেড থেকে সফলতা পায়। যারা সুযোগ সন্ধানী, স্বল্প মূলধন ও দৈনিক হারে স্বল্প সময়ের ট্রেডার তাদের জন্য নিচে তিন ধরনের ট্রেডিং কৌশল বর্ণনা করেছি আশা করি অবশ্যই উপকৃত হবেন এবং যতটা সম্ভব কম সময় ব্যয় করে সামঞ্জস্যপূর্ণ মুনাফা নেওয়ার ধারনা পেয়ে যাবেন – কৌশল ১ - স্বল্প বা কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেমে ট্রেড (Trade low Maintenance time frames) : এটি স্বল্প সময়ের ট্রেডাদের জন্য একটি কার্যকর পদ্ধতি। বিশেষ করে যারা অন্য পেশায় দিনের সিংহভাগ সময় ব্যয় করে থাকেন। আপনি যদি আপনার ট্রেডিং চার্টকে দিনে তিন বা চার বার করে দেখেন তাহলে আপনার কিন্তু ট্রেড এ সারাদিন সময় দিতে হবে না এবং ট্রেড করাও আপনার জন্য অনেক সহজ হবে। ট্রেডে এন্ট্রি করার জন্য বা ট্রেড করার জন্য একটি আট(৮)ঘন্টার চার্টকে আপনার দৈনিক দুই বা তিনবার দেখলেই হবে, বিশেষ করে যখন আট(৮)ঘন্টার একটি ক্যান্ডেল শেষ হয়ে আরেকটি আট(৮)ঘন্টার ক্যান্ডেল শুরু হবে তখনই আপনি ট্রেডে এন্টির জন্য তৈরি হবেন এবং ওই আট(৮) ঘন্টার নতুন ক্যান্ডেলে ট্রেড ওপেন করা যায় কি না এ্যনালাইসিস করুন, যদি আপনি এ্যনালাইসিস করে দেখেন যে ওই নতুন ক্যান্ডেল্টিতে ট্রেড ওপেন করার মত সুবিধাজনক কোনো কারন নেই তাহলে আপনি ওই ক্যান্ডেল্টিতে ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন এবং পরবর্তী আট(৮) ঘন্টার ক্যান্ডেল জন্মের সময় আবার ট্রেডিং চার্টে আসুন। আর যদি দিনে একবার অর্থাৎ দৈনিক চার্টে ট্রেড করতে চান তাহলে ট্রেড এ এন্ট্রির জন্য আপনার প্রিয় পেয়ারের চার্ট দিনে একবার দেখলেই হয়। আর চার(৪)ঘন্টার চার্ট হলে ছয়(৬) বার। এবার আপনি চার(৪), আট(৮), দৈনিক টাইম ফ্রেম চার্টের সাথে ৫মিনিট বা ৩০মিনিটের চার্টের ট্রেডিং সময়ের পার্থক্য বের করুন। ধরুন, আপনি ৩০মিনিটের চার্টে ট্রেড করে থাকেন, এখন আপনি যদি আপনার কোনো প্রয়োজনে ২-৩ঘন্টার জন্য কম্পিউটারের সামনে থেকে দূরে থাকতে হয় তাহলে আপনার কতগুলো ট্রেডিং সেটাপ বা ট্রেড এন্ট্রি বাদ গেল? উত্তরে মিনিমাম ৪থেকে৬টি। তাহলে এক্ষেত্রে আপনি যদি চার(৪), আট(৮), দৈনিক টাইম ফ্রেম চার্টে ট্রেড সেটাপ করতেন তাহলে আর আপনার ট্রেড এন্ট্রি মিস হতো না। ঠিক না? টাইম ফ্রেম বড়/বেশী হলে আরেকটি সুবিধাও আছে তা হলো আপনাকে দ্রুত কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হবেনা। শুধুমাত্র আপনার টাইম ফ্রেম মতে ট্রেডে এন্টির সময় হলে আপনি চার্টে প্রবেশ করলেই হবে। এ ধরনের ট্রেডে আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আপনি যদি চার(৪) বা আট(৮) ঘন্টার চার্টে ট্রেড করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন তাহলে স্টপলস এর ক্ষেত্রে একটি ধারনা দিই তা হলো – আপনি যে ক্যান্ডেলে ট্রেডে এন্ট্রি করেছেন বাই ট্রেড হলে সে ক্যান্ডেলের আগের ক্যান্ডেলের সর্বনিম্ন রেট এর থেকে ৫পিপ্স নিচে স্টপলস দিন আর সেল ট্রেড এর ক্ষেত্রে সে ক্যান্ডেলের আগের ক্যান্ডেলের সর্বোচ্চ রেট এর থেকে ৫পিপ্স উপরে স্টপলস দিন। এবং টেক প্রোফিট সাপোর্ট রেসিস্ট্যন্স বা নিজে এ্যনালাইসিস করে দিন। যারা সুযোগ সন্ধানী, স্বল্প মূলধন ও দৈনিক হারে স্বল্প সময়ের ট্রেডার আমি মনে করি তারা যদি কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেমে ট্রেড করে তাহলে তাদেরকে সময় এবং ট্রেডে সফলতা নিয়ে চিন্তিত হতে হবেনা। কারন স্বল্প বা কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেম ট্রেডিং পদ্ধতি হলো স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য অন্যতম চাবি বা কৌশল। বিঃ দ্রঃ এ পদ্ধিতির জন্য আমি ৮ঘন্টা ও দৈনিক চার্টকে প্রাধান্য দিই। MT4 প্লাটফর্ম এ ৮ঘন্টার চার্ট ফ্রেম নেই তবে MT5 এ আছে, তাই যারা MT4 প্লাটফর্ম ট্রেড করে থাকেন তারা ৮ঘন্টার চার্ট ফ্রেম এ ট্রেড করতে চাইলে ৪ঘন্টার দুটি ক্যান্ডেল পর পর ট্রেড করার জন্য দিদ্ধান্ত নিন বা MT5 এ গিয়ে আপনার পেয়ারের ট্রেড চিত্র দেখে নিন। ধন্যবাদ।