Mhafiz™

Double Bollinger bands - এইবার প্রফিট না হইয়া যাইব কই ! নিশ্চিত প্রফিট ট্রেডিং স্ট্রেটিজি।

3 posts in this topic

বলিঙ্গার বেন্ডের ধারাবাহিক আলোচনায় আবারো স্বাগতম সবাইকে, বলেছিলাম যে যারা আমার এই পোস্টগুলো নিয়মিত ফলো করবেন এবং অনুশীলনের মাধ্যমে সেই মোতাবেক ট্রেড করবেন তাদেরকে নিশ্চিত প্রফিট করিয়ে ছাড়বো এবং বলিঙ্গার এক্সপার্ট ট্রেডার বানাবো। হ্যাঁ এখনও তাই বলছি তার তারই ধারাবাহিক পর্ব হিসেবে আজকে শুরু করছি এই সিরিজের পঞ্চম পর্ব , ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, প্রফিট না হইয়া যাইব কই !

এই সিরিজের পূর্বের পূর্ব গুলো পেতে এইখানে জানঃ

বলিঙ্গার বেন্ড স্কেল্পিং- Bollinger bands scalping নিশ্চিত প্রফিট- A-Z ফরেক্স এক্সপার্ট ট্রেডিং – ( পোস্ট পর্ব ৪ )

What is Double Bollinger Bands?

সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং সুবিধার জন্য ডাবল বলিঙ্গার বেন্ডটি প্রথমদিকে একটি টুল হিসেবে ব্যাবহার হত। সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং খুবই চেলেঞ্জিং একটি পদ্ধতি যেখানে ট্রেডাররা অনেক রিস্ক নিয়ে এই ধরনের ট্রেড করে থাকেন। আর এই পদ্ধতিতে ট্রেডিং রিস্ক কমানোর জন্যই ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড এর উৎপত্তি, যেই পদ্ধতিতে ট্রেডাররা আগের এই পদ্ধতিতে রিস্ক অনেক কমিয়ে আগের চেয়ে ভালো ট্রেড করতে পারে। এই পদ্ধতিতে ট্রেডিং টাইমিং টা খুবই জরুরি একটা ফেক্টর যার অভাবে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত বিসয় ঘটতে পারে যা ট্রেডার জন্য মোটেও ভালো নয়।

How does double Bollinger bands work?

মুলত এই পদ্ধতির ট্রেডিং এর জন্য ২ সেট বলিঙ্গার বেন্ড এর প্রয়োজন হয় বলে ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড হিসেবে নাম করন করা হয়েছে। যেখানে একটি বেন্ডের উপর আরেকটি বেন্ড স্ব- স্ব ভেলু নিয়ে কাজ করে থাকে। এই ক্ষেত্রে একটি বলিঙ্গার বেন্ড ২০ ডে মুভিং আভারেজ এবং স্ট্যান্ডার্ড ডিবিয়েশন ১ এবং অপরটি সেইম মুভিং এভারেজে স্ট্যান্ডার্ড ডিবিয়েশন ২ ভেলুতে সেট করে কাজ করতে হয়। এতে করে দুটি বলিঙ্গার এর মাঝে একটি গ্যাপ তৈরি হয় যার মাধ্যমেই এই স্ট্রেটিজির প্রফিট লস এবং স্টপ লস সেটিং করে ট্রেড করা হয়। ট্রেডাররা দুটি বলিঙ্গার এর স্প্রেড বা গ্যাপ কে ট্রেডিং এন্ট্রি এবং এক্সিট ধরে ট্রেড শুরু করে।

তাহলে দুটি বলিঙ্গার এর মান হবে নিম্বের মতঃ

Double_bollinger_bands_example.thumb.jpg 

প্রথম বলিঙ্গার বেন্ড ভেলু;

Period: 20
Deviations: 2
Shift: 0

দ্বিতীয় বলিঙ্গার বেন্ড ভেলুঃ

Period: 20
Deviations: 1
Shift: 0

আপনার চার্ট কে দুটি বলিঙ্গার বেন্ডের ভিন্ন ভিন্ন ডিবিয়েশনে সেট করা পর দেখতে এমন হবে মনে রাখবেন দুটি বলিঙ্গারের মিডল বেন্ড কিন্তু সেইম দুটি ভিন্ন ডিবিয়েশনের অবস্থান বোঝানোর জন্য দুটিকে আমি আলাদা আলাদা রঙ্গে সেট করেছি আশা করছি বুঝতে সমস্যা হবে না।

সাইডওয়ে মার্কেট ট্রেডিং থেকে ভালো প্রফিট করার সবচেয়ে গুরত্তপুর্ন এবং উপযোগী একটি পদ্ধতি হল ডাবল বলিঙ্গার বেন্ড স্ট্রেটিজি। আসুন দেখি এইবার কিভাবে আপনার ট্রেডগুলো সেট হবে। আরেকটা কথা স্ট্রেটিজিটি একটু স্লোলি বুঝে পড়ুন দেখবেন একদম সহজ, পড়ার সাথে সাথে ছবি ধরে বুঝে এগুতে থাকুন, জটিল হবে না।

লং ট্রেড সেটআপঃ

তাহলে এতক্ষণের আলোচনায় আশা করছি দুটি বলিঙ্গার বেন্ড বুঝে নিয়েছেন এবং সেটিং তা বুঝতে পেরেছেন ভালো ভাবে, এইবার ট্রেডে কিভাবে ঢুকবেন তা বলছি খেয়াল করুন। আরেকটা কথা বলে নেয়, আলোচনার জন্য আমি ডিবিয়েশন ১ বলিঙ্গার কে BB1 এবং ডিবিয়েশন ২ বলিঙ্গারকে BB2 নাম ধরে ডাকবো।  

 Double_bollinger_long_tade.thumb.png.f0a

বায় ট্রেডে ডুকার জন্য আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে একটি ক্যান্ডলের জন্য যা BB1 এর আপার বেন্ডে ক্লোজ হয়েছে। তারপর আপনাকে দেখতে হবে যে তার পূর্বের ক্যান্ডলে গুলো কোথায় ক্লোজ হয়েছে BB1 এর আপার বেন্ডের উপরে নাকি নিচে। যদি তাই হয় তাহলে আপনি পেয়ে গেছেন লং ট্রেড সিগনাল। অর্থাৎ আপনি এখন নিশ্চিত বায় ট্রেড করতে পারবেন। খেয়াল করুন নিচের চিত্রে BB1 এর আপার বেন্ডের উপরে ৩ নম্বর ক্যান্ডেল্টি ক্লোজ হয়েছে। এবং পূর্বের ২টি ক্যান্ডেল ক্লোজ হয়েছে BB1 আপার বলিঙ্গারের নিচে। আর মাধ্যমে আপনি নিশ্চিত ৩ নাম্বার ক্যান্ডেল বায় ট্রেড দিতে পারেন।

স্টপ লসঃ

৩ নাম্বার ক্যন্ডেলের লো প্রাইসে অর্থাৎ BB1 এর আপার বেন্ডে ৩য় ক্যন্ডেল ক্লোজে আপনি যে বায় অর্ডার দিয়েছেন তার লো একদম লো প্রাইসে স্টপ লস সেট করে দিবেন। অনেকে অবশ্য ৩য় ক্যান্ডেলের লো প্রাইসের ১০-১৫ পিপস নিচে স্টপ লস সেট করে থাকেন, এই ক্ষেত্রে আপনি বলব আপনি প্র্যাকটিস এর মাধ্যমে নিজেই ঠিক করে নিবেন কোথায় স্টপ লস সেট করবেন।

টেইক প্রফিটঃ

যে পরিমান স্টপ লস অর্থাৎ যত পিপস স্টপ লস পয়েন্ট সেট করেছেন তার দ্বিগুণ টেইক প্রফিট সেট করে ট্রেডকে ফাইনালি সেট করে নিন। এই ক্ষেত্রে অনেক ট্রেডার আছেন যারা ট্রেইলিং করে থাকেন, যেমন মার্কেট যদি ৫০ পিপস আপনার অনুকুলে যায় তখন স্টপ লসও ৫০ পিপস ট্রেইল করে করে এইভাবে দীর্ঘ মেয়াদি প্রায় ২০০-৫০০ পিপস পর্যন্ত বা তার ও বেশি প্রফিট নিয়ে থাকেন।

এইভাবে লং ট্রেড করবেন, এর শর্ট ট্রেডের কথা আশা করি আর বলতে হবে না, লং ট্রেড যেভাবে করেছেন তার বিপরীত নিয়মে BB1 লাওয়ার বেন্ডের মাধ্যমে শর্ট ট্রেড করবেন।

পদ্ধতিটি অনেক সুপার কাজ করে যদি ঠিক মত অনুশীলন করে ব্যাবহার করতে পারেন তাহলে নিশ্চিত ভালো প্রফিট নিতে পারবেন।

View the full article

View the full article

sadwaves and salmansam like this

Share this post


Link to post
Share on other sites

চমৎকার একটি ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, আসলে বলিঙ্গার বেন্ড হচ্ছে সব ইন্ডিকেটরের গুরু, এই টুলস টি দিয়ে যে কতভাবে স্ট্রেটিজি সেট করা যায় তা কেবল পরছি আর শিখছি। ধন্নবাদ ভাই খুব গুরুত্তপুর্ন এবং ইফেক্টিভ একটা প্রফিট ট্রেডিং স্ট্রেটিজি। :wub::P:wow:

Share this post


Link to post
Share on other sites

টপিকটিতে মন্তব্য করতে সাইন ইন করুন অথবা নতুন একাউন্ট করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই মেম্বার হতে হবে

একাউন্ট করুন

খুব সহজে একাউন্ট করুন


নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন

সাইন ইন

ইতিমধ্যে একাউন্ট করেছেন ? সাইন ইন করুন


এখনি সাইন ইন করুন