Jump to content

Bdforexpro - ফরেক্স সংক্রান্ত আলোচনা,ফরেক্স শিক্ষা, ফরেক্স ট্রেডিং এবং এনালাইসিসের উন্মক্ত এবং অনন্য স্থান। এই ফোরামে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ ফ্রী। পোস্ট এর পূর্বে অনুগ্রহ করে ফোরাম নিতিমালা গুলো পড়ে, বুঝে পোস্ট করুন। ধন্যবাদ;

Search the Community

Showing results for tags 'daily trade strategy'.

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


  • সাধারণ ফরেক্স সহায়তা
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা, ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, নিউজ এবং সিগন্যাল সম্পর্কিত
    • নিউজ, সিগনাল ও এনালাইসিস
    • প্রশ্ন ও উত্তর
    • ট্রেডিং স্ট্রেটিজি
    • ফরেক্স স্টাডি
    • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • ট্রেডিং সফটওয়্যার - মেটাট্রেডার, সি-ট্রেডার, ওয়েবট্রেডার
    • ফোরাম ও পোর্টাল সহায়তা
    • ফরেক্স ব্রোকার
  • ফরেক্স ব্রোকার সম্পর্কিত
  • বিজ্ঞাপন
  • অফ-টপিক

Categories

  • সাধারণ ফরেক্স বই
  • টেকনিক্যাল এনালাইসিস
  • ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস
  • ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস
  • ইনডিকেটর

Find results in...

Find results that contain...


Date Created

  • Start

    End


Last Updated

  • Start

    End


Filter by number of...

Joined

  • Start

    End


Group


ওয়েবসাইট URL


ইয়াহু(Yahoo)


স্কাইপ(Skype)


মোবাইল নং


ঠিকানা


ইচ্ছা/আগ্রহ/শখ


ব্রোকার নেইম


ট্রেড অভিজ্ঞতা

Found 2 results

  1. ব্যস্ত বা স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য তিনটি ট্রেডিং কৌশল (প্রথম অংশ)। বন্ধুরা, আপনারা ফরেক্স ট্রেড এ কি রকম সময় ব্যয় করেন বা কিভাবে সময় দেন? কারন আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে বেশীরভাগ ট্রেডারের-ই মূলধনের পরিমান কম। আর স্বল্প মূলধন দ্বারা আপনি ফরেক্স থেকে জীবন ও জীবিকা নির্বাহের অর্থ উপার্জন করতে পারবেন না। তাই আমাদের অধিক ট্রেডারকে-ই ট্রেড এর পাশাপাশি অন্য পেশাকেও বেঁচে নিতে হয়, আর আপনি যদি অন্য পেশায় চাকুরী করেন তাহলেতো সেখানে দৈনিক নুন্যতম ৮-১০ঘন্টার একটা সময় ব্যয় করতে হয়, তাহলে আপনি ট্রেডিং এ কখন কিভাবে সময় দেন? রেগুলার বা প্রোফেশনাল ট্রেডার হলে ট্রেডে দৈনিক ৭-১০ঘন্টা সময় দিতে হয়, আর আপনি যদি অন্য পেশায় চাকুরী করে থাকেন তাহলে আপনার পক্ষে ট্রেডিং এ ৭-১০ঘন্টা সময় দেওয়া কখনো সম্ভব নয় বা আপনি পর্যাপ্ত মূলধনের অভাবে ট্রেডিং এ ও ফুল-টাইম সময় দিতে পারছেন না। আবার অনেকে ভাল ট্রেড করতে পারে কিন্তু অন্য পেশার কারনে ট্রেডিং এ সময় বা মূলধন খাটান না, কারন তিনি ভাবেন যে আমি ট্রেড এ সময় দিতে পারবো না। সত্যিই এটা বিবেচ্য বিষয় যে, আপনি অন্য পেশায় ৮-১০ঘন্টা সময় দিলে ট্রেডিং এ কিভাবে সময় দিবেন! তাই যারা স্বল্প মূলধনের ট্রেডার এবং ফরেক্স এ পূর্ণ সময় ব্যয় করতে পারেন না, আজকের এই প্রয়াস তাদের-ই জন্য। তারা যেন অন্য পেশার পাশাপাশি ফরেক্স ট্রেডিং ও চালিয়ে যেতে পারে এবং ট্রেড থেকে সফলতা পায়। যারা সুযোগ সন্ধানী, স্বল্প মূলধন ও দৈনিক হারে স্বল্প সময়ের ট্রেডার তাদের জন্য নিচে তিন ধরনের ট্রেডিং কৌশল বর্ণনা করেছি আশা করি অবশ্যই উপকৃত হবেন এবং যতটা সম্ভব কম সময় ব্যয় করে সামঞ্জস্যপূর্ণ মুনাফা নেওয়ার ধারনা পেয়ে যাবেন – কৌশল ১ - স্বল্প বা কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেমে ট্রেড (Trade low Maintenance time frames) : এটি স্বল্প সময়ের ট্রেডাদের জন্য একটি কার্যকর পদ্ধতি। বিশেষ করে যারা অন্য পেশায় দিনের সিংহভাগ সময় ব্যয় করে থাকেন। আপনি যদি আপনার ট্রেডিং চার্টকে দিনে তিন বা চার বার করে দেখেন তাহলে আপনার কিন্তু ট্রেড এ সারাদিন সময় দিতে হবে না এবং ট্রেড করাও আপনার জন্য অনেক সহজ হবে। ট্রেডে এন্ট্রি করার জন্য বা ট্রেড করার জন্য একটি আট(৮)ঘন্টার চার্টকে আপনার দৈনিক দুই বা তিনবার দেখলেই হবে, বিশেষ করে যখন আট(৮)ঘন্টার একটি ক্যান্ডেল শেষ হয়ে আরেকটি আট(৮)ঘন্টার ক্যান্ডেল শুরু হবে তখনই আপনি ট্রেডে এন্টির জন্য তৈরি হবেন এবং ওই আট(৮) ঘন্টার নতুন ক্যান্ডেলে ট্রেড ওপেন করা যায় কি না এ্যনালাইসিস করুন, যদি আপনি এ্যনালাইসিস করে দেখেন যে ওই নতুন ক্যান্ডেল্টিতে ট্রেড ওপেন করার মত সুবিধাজনক কোনো কারন নেই তাহলে আপনি ওই ক্যান্ডেল্টিতে ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন এবং পরবর্তী আট(৮) ঘন্টার ক্যান্ডেল জন্মের সময় আবার ট্রেডিং চার্টে আসুন। আর যদি দিনে একবার অর্থাৎ দৈনিক চার্টে ট্রেড করতে চান তাহলে ট্রেড এ এন্ট্রির জন্য আপনার প্রিয় পেয়ারের চার্ট দিনে একবার দেখলেই হয়। আর চার(৪)ঘন্টার চার্ট হলে ছয়(৬) বার। এবার আপনি চার(৪), আট(৮), দৈনিক টাইম ফ্রেম চার্টের সাথে ৫মিনিট বা ৩০মিনিটের চার্টের ট্রেডিং সময়ের পার্থক্য বের করুন। ধরুন, আপনি ৩০মিনিটের চার্টে ট্রেড করে থাকেন, এখন আপনি যদি আপনার কোনো প্রয়োজনে ২-৩ঘন্টার জন্য কম্পিউটারের সামনে থেকে দূরে থাকতে হয় তাহলে আপনার কতগুলো ট্রেডিং সেটাপ বা ট্রেড এন্ট্রি বাদ গেল? উত্তরে মিনিমাম ৪থেকে৬টি। তাহলে এক্ষেত্রে আপনি যদি চার(৪), আট(৮), দৈনিক টাইম ফ্রেম চার্টে ট্রেড সেটাপ করতেন তাহলে আর আপনার ট্রেড এন্ট্রি মিস হতো না। ঠিক না? টাইম ফ্রেম বড়/বেশী হলে আরেকটি সুবিধাও আছে তা হলো আপনাকে দ্রুত কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হবেনা। শুধুমাত্র আপনার টাইম ফ্রেম মতে ট্রেডে এন্টির সময় হলে আপনি চার্টে প্রবেশ করলেই হবে। এ ধরনের ট্রেডে আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আপনি যদি চার(৪) বা আট(৮) ঘন্টার চার্টে ট্রেড করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন তাহলে স্টপলস এর ক্ষেত্রে একটি ধারনা দিই তা হলো – আপনি যে ক্যান্ডেলে ট্রেডে এন্ট্রি করেছেন বাই ট্রেড হলে সে ক্যান্ডেলের আগের ক্যান্ডেলের সর্বনিম্ন রেট এর থেকে ৫পিপ্স নিচে স্টপলস দিন আর সেল ট্রেড এর ক্ষেত্রে সে ক্যান্ডেলের আগের ক্যান্ডেলের সর্বোচ্চ রেট এর থেকে ৫পিপ্স উপরে স্টপলস দিন। এবং টেক প্রোফিট সাপোর্ট রেসিস্ট্যন্স বা নিজে এ্যনালাইসিস করে দিন। যারা সুযোগ সন্ধানী, স্বল্প মূলধন ও দৈনিক হারে স্বল্প সময়ের ট্রেডার আমি মনে করি তারা যদি কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেমে ট্রেড করে তাহলে তাদেরকে সময় এবং ট্রেডে সফলতা নিয়ে চিন্তিত হতে হবেনা। কারন স্বল্প বা কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেম ট্রেডিং পদ্ধতি হলো স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য অন্যতম চাবি বা কৌশল। বিঃ দ্রঃ এ পদ্ধিতির জন্য আমি ৮ঘন্টা ও দৈনিক চার্টকে প্রাধান্য দিই। MT4 প্লাটফর্ম এ ৮ঘন্টার চার্ট ফ্রেম নেই তবে MT5 এ আছে, তাই যারা MT4 প্লাটফর্ম ট্রেড করে থাকেন তারা ৮ঘন্টার চার্ট ফ্রেম এ ট্রেড করতে চাইলে ৪ঘন্টার দুটি ক্যান্ডেল পর পর ট্রেড করার জন্য দিদ্ধান্ত নিন বা MT5 এ গিয়ে আপনার পেয়ারের ট্রেড চিত্র দেখে নিন। ধন্যবাদ।
  2. ব্যস্ত বা স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য তিনটি ট্রেডিং কৌশল (শেষ অংশ)। বন্ধুরা, ব্যস্ত বা স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য তিনটি ট্রেডিং কৌশল লিখাটির প্রথম অংশে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করেছি, যারা প্রথম অংশ পড়েননি তারা বিডিফরেক্সপ্রো থেকে প্রথম অংশটি জেনে নিন তাহলে দ্বিতীয় অংশটি বুঝতে আপনার জন্য সহজ হবে। তাহলে আসুন আর দেরি না করে জেনে নেই ব্যস্ত বা স্বল্প সময়ের ট্রেডারদের জন্য বাকী দুটি ট্রেডিং কৌশল- কৌশল ২ সহজতর ভাবে ট্রেড করুন (Simplify Your Trading). অনেক ভালো ট্রেডার ফরেক্স এর ক্ষেত্রে ইংরেজিতে একটি কথা বলেন, In Forex, simple is better. বেশীরভাগ নতুন ট্রেডার তাদের ট্রেডিং এর জন্য জটিল ইন্ডিকেটর বেইজড ট্রেড স্ট্রেটেজি ফলো করে থাকে। আর ইন্ডিকেটর বেইজড ট্রেড কৌশল বিভিন্নভাবে স্থাপন করতে হয়। আমার জানামতে, ইন্ডিকেটর বেইজড স্ট্রেটেজিতে একের অধিক ইন্ডিকেটর ব্যবহার করতে হয় যার ফলে একেকটি ইন্ডিকেটর একেকটি দিকে (বাই/সেল) ইন্ডিকেট করে, এতে করে একজন ট্রেডার বেশীরভাগ সময় অনায়াসে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে লসের সম্মুখীন হয়। তাই যদি সহজভাবে সফল ট্রেড করা যায় তাহলে আপনি কেন জটিল পদ্ধতিকে বেঁচে নিবেন? সুতারাং কিভাবে আপনি আপনার ট্রেডিং পদ্ধতিকে সহজ করবেন? আপনার এই প্রশ্নের খুবই সহজ উত্তর হলো প্রাইচ একশন বা প্রাইচ একশন পদ্ধতি। প্রাইচ একশন এর মাধ্যমে আপনি কোনো প্রকার ইন্ডিকেটর ছাড়া মুক্ত চার্টে পরিস্কারভাবে সফল ও প্রফিটেবল ট্রেড করতে পারেন। প্রাইচ একশন এর মাধ্যমে ট্রেড করার জন্য আপনি মিনিমাম ৪ঘন্টার টাইম ফ্রেম ফলো করুন/করা ভালো, তার সাথে স্টপলস টেক প্রফিটের জন্য সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স মনে রাখুন/ব্যবহার করুন। তাই আপনার ট্রেডিং পদ্ধতিকে সহজ করার জন্য আপনাকে প্রাইচ একশন সম্পর্কে ভাল ধারনা রাখতে হবে। এজন্য বিডিফরেক্সপ্রো তে প্রাইচ একশন নিয়ে লিখাগুলো পড়ে এ সম্পর্কে ধারনা নিতে পারেন আর জানলেতো আপনার জন্য খুবই ভালো। কৌশল ৩ অধিক পেয়ার এ ট্রেড করুন (Trade a Lot of Pairs). আপনার এটা ভুল বা উম্মাদের সিদ্ধান্ত বলে মনে হতে পারে যে, কিভাবে আপনি অধিক পেয়ারে ট্রেড এর মাধ্যমে আপনার ট্রেড পদ্ধতিকে সহজ করবেন? সাধারণত আমি ট্রেডারদেরকে এক থেকে তিনটি পেয়ারে ট্রেড করার জন্য উৎসাহিত করি। যাইহোক, আপানার যদি ট্রেডে সময় দেওয়ার মত পরিস্থিতি না থাকে তাহলে আপনাকে বলবো আপনি অধিক পেয়ারে ট্রেড করুন। স্বল্প বা কম রক্ষণাবেক্ষণ সময় ফ্রেমে ট্রেড পদ্ধতিতে কিন্তু অধিক পেয়ারে ট্রেড করলে আপনি বিপদে পড়বেন আর এটা মোকাবেলা করার জন্য আপনাকে অধিক পেয়ারে ট্রেড করতে হবে। কারন আমরা ট্রেড করার সময় দেখি যে, অনেকগুলো পেয়ারের মুবমেন্ট একই রকম হয়, তার মধ্যে অনেকগুলো একই দিকে যায় আবার অনেকগুলো পেয়ার তার বিপরিত দিকে যায় ঠিক কারেন্সি রিং এর মত(কারেন্সি রিং সম্পর্কে বিডিফরেক্সপ্রো-তে বিস্তারিত পাবেন), তাই আপনি যদি অধিক পেয়ারে ট্রেড এর জন্য একই গন্তব্যের কিছু পেয়ার আর বিপরীত গন্তব্যের কিছু পেয়ার আর এদের ক্রস কিছু পেয়ার বাছাই করে সবগুলোতে একই সময়ে এন্টি করেন এবং তাদের কিছু পেয়ার ভাল প্রফিটে গেলে সাপোর্ট রেসিস্টেন্স/প্রাইচ একশন দেখে প্রফিটের পেয়ারগুলোর ট্রেড ক্লোজ করে দিন আর যদি সকল পেয়ার মিলে যদি প্রফিটে থাকে তাহলে সবগুলো একসাথে ক্লোজ করে দিন। মার্কেট যখন ভালো মুবমেন্ট করে তখন বিভিন্ন পেয়ারের মুবমেন্ট ও ট্রেন্ড অনেকটা উপরের চিত্রের ন্যায় হয়। আপনি যদি আট(৮) ঘন্টার টাইম ফ্রেমে ট্রেড করে থাকেন তাহলে আপনাকে অন্তত পাঁচটি(৫) পেয়ারে আর দৈনিক টাইম ফ্রেমে ট্রেড করলে দশটি(১০) পেয়ারে ট্রেড করা উচিৎ/প্রয়োজন। আমি জানি হয়তো আপনার কাছে এটা শুনতে অনেকটা পাগলের প্রলাপের মত লাগছে, যদি তাই হয় তাহলে আপনার ধারনা ভুল। এজন্য আপনাকে বড় টাইম ফ্রেমে প্রাইচ একশনের সাহায্যে ট্রেড করতে হবে। আপনার ট্রেডিং পেয়ারগুলোর চার্টকে পরিস্কার রাখতে হবে(ইন্ডিকেটর বিহীন)। এবং বড় টাইম ফ্রেমে ট্রেড করার সিদ্ধান্ত নিতে আপনাকে অধিক সময়ও দিতে হবে না। এবং আপনি যদি ১৫-২০ পেয়ারেও ট্রেড করতে চান এজন্য আপনাকে বড় জোর ৫মিনিট সময় ব্যয় করতে হবে, তাই ঐই হিসেবে দশ(১০) পেয়ারে ট্রেড করা আমি মনে করি অনেক সহজ। আমি প্রায় সময় আট ঘন্টা বা দৈনিক চার্টে নিম্নের আটটি পেয়ারে ট্রেড করে থাকি – EUR/USD GBP/USD USD/CAD USD/CHF USD/JPY GBP/JPY EUR/JPY EUR/GBP উপরোক্ত পেয়ারগুলতে সফল ট্রেড করার জন্য আমি সপ্তাহে কয়েক ঘন্টা ব্যয় করে থাকি। বন্ধুরা ট্রেডের এই তিনটি কৌশল আপনাদের কেমন লাগলো? আশা করি যদি ট্রাই করেন তাহলে ভালো ফলাফল পাবেন। আর যারা এখন নিজের/অন্যের স্ট্রেটেজি ফলো করছেন কিন্তু কোন লাভ হচ্ছে না, তারা আগামী সপ্তাহ থেকে এই তিনটি কৌশলের যে কোনো একটিতে (যেটা আপনি ভাল বুঝেছেন) আট ঘন্টা বা দৈনিক চার্টে ট্রেড করা শুরু করুন অবশ্যই ভাল ফলাফল পাবেন। এবং এই কৌশলগুলো থেকে আপনি যদি ভাল ফলাফল পেয়ে থাকেন তাহলে আপনার পরিচিত ট্রেডারদের সাথে শেয়ার করুন, মনে রাখবেন আপনার জ্ঞান যতই অন্যের মাঝে বিতরণ করবেন ততই বৃদ্ধি পাবে। ধন্যবাদ।
×
×
  • Create New...