Search the Community

Showing results for tags 'eurusd technical analysis'.



More search options

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


  • সাধারণ ফরেক্স সহায়তা
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা, ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, নিউজ এবং সিগন্যাল সম্পর্কিত
    • ফোরাম ও পোর্টাল সহায়তা
    • সাধারণ ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • নিউজ, সিগনাল ও এনালাইসিস
    • প্রশ্ন ও উত্তর
    • ট্রেডিং স্ট্রেটিজি
    • ফরেক্স স্টাডি
  • বিজ্ঞাপন
    • কমার্শিয়াল কন্টেন্ট
    • ক্রয়-বিক্রয়-এক্সচেঞ্জ
  • ট্রেডিং সফটওয়্যার (প্লাটফর্ম-মেটা ট্রেডার)
    • ইন্ডিকেটর
    • অটোট্রেডিং
    • মেটাট্রেডার ৪, ৫
  • ফরেক্স ব্রোকার সম্পর্কিত
    • ফরেক্স ব্রোকার
    • ফরেক্স অফার
    • পেইমেন্ট মেথড
  • অফ-টপিক

Categories

  • সাধারণ ফরেক্স বই
  • টেকনিক্যাল এনালাইসিস
  • ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস
  • ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস
  • ইনডিকেটর

Group


ওয়েবসাইট URL


ইয়াহু(Yahoo)


স্কাইপ(Skype)


ঠিকানা


ইচ্ছা/আগ্রহ/শখ

Found 2 results

  1. EURUSD মার্কেট আউটলুক ০৬ই অক্টোবর থেকে ১০ই অক্টোবর পর্যন্ত। বন্ধুরা, পেয়ারটির মার্কেট বিগত তিন মাস ধরে একচেটিয়া সেলে ক্রমাগত ধাবিত হচ্ছে বিগত সপ্তাহেও তার ব্যতিক্রম হয়নি, বিগত সপ্তাহে পেয়ারটি ১৮০পিপ্স এর মত সেলে গিয়ে ১.২১১৫ মুল্যে মার্কেট ক্লোজ করে। বর্তমানে সবধরনের চার্টে পেয়ারটির মার্কেট এখনো সেল ইন্ডিকেট করছে। যেহেতু পেয়ারটির মার্কেট এখনো সেল ইন্ডিকেট করছে তাই টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিসের দিকে ফলো করে ধারনা করা যে পেয়ারটি এ সপ্তাহেও সেলে-ই থাকবে তবে সেটা বেশীরভাগ নির্ভর করবে উভয় কারেন্সির নিউজগুলোর এ্যকচুয়্যাল রিপোর্ট এর উপর যেহেতু এ সপ্তাহে পেয়ারটির উভয় কারেন্সিতে শুধুমাত্র তিনটি নিউজ রয়েছে, তাই টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস দেখে বলা যায়, পেয়ারটি এ সপ্তাহে বাই এ কিছুটা কারেকশন করে আবার সেল এর দিকেই ধাবিত হবে যদি পেয়ারটির নিউজগুলোর এ্যকচুয়্যাল রিপোর্ট USD কারেন্সির ফেবার এ থাকে। তবে আমার মতে এ সপ্তাহে নিউজ এর দিন পেয়ারটি হুট করে যে কোনো দিকে বিশাল একটা মুবমেন্ট ঘটাতে পারে। এ সপ্তাহের জন্য পেয়ারটির সর্বনিম্ন সাপোর্ট হিসেবে ধরা যায় যথাক্রমে ১.২৪৪৩ ও ১.২৩৩৬ এবং সরবোচ্চ রেসিস্টেন্স হিসেবে ১.২৬২৫ ও ১.২৭৪৫। যাইহোক, মার্কেট এ পরিস্থিতি থেকে এ সপ্তাহে বাই গেলে ১.২৬৬০-১.২৭৪৫ পর্যন্ত এবং সেল এ যাওয়ার জন্য ১.২৪৯৬ সাপোর্ট মুল্য ক্রস করলে ১.২৪০০-১.২৩৪০ পর্যন্ত যেতে পারে। যদি উক্ত পেয়ারটির বিগত বছরগুলোর সাপোর্টমুল্য বিবেচনা করেন তাহলে পেয়ারটি সেলে যাওয়াটা টেকনিক্যালি স্বাভাবিক। আপনাদের যাতে এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে ট্রেড করতে সুবিধা হয় সেজন্য চিত্রের সাহায্যে পেয়ারটির সাপোর্ট, রেসিস্টেন্স, মার্কেট ট্রেন্ড ও ট্রেড আইডিয়া শেয়ার করলাম। দৈনিক চার্টে মার্কেট ট্রেন্ডঃ সাপোর্ট রেসিসটেন্স ও ট্রেড আইডিয়া চিত্রঃ উপরোক্ত চিত্রেঃ সম্পূর্ণ চার্ট আয়ত্তে না আসায় সকল সাপোর্টসমূহ গ্রাফের সাহায্যে দেখানো সম্ভব হয়নি। পিভট পয়েন্টঃ ১.২৫৬৩। রেসিসটেন্স সমুহঃ ১.২৫৬৬, ১.২৬২৪, ১.২৬৬০, ১.২৭০০, ১.২৭৪৫ ও স্ট্রং রেসিসটেন্স ১.২৯১০। সাপোর্ট সমুহঃ ১.২৪৯৬, ১.২৪৪৩, ১.২৪০৭, ১.২৩৩৬, ১.২২৮৫ ও স্ট্রং সাপোর্ট ১.২২৪০। এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্ট যে নিউজগুলো আছে তা নিম্নরুপঃ ০৬ই অক্টোবর সোমবার – মার্কেট ওপেনের প্রথম দিনে পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিন পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ফলো করে ট্রেড করুন। ০৭ই অক্টোবর মঙ্গলবার – মার্কেট ওপেনের দ্বিতীয় দিনেও পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিনও পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ফলো করে ট্রেড করুন। ০৮ই অক্টোবর বুধবার – সপ্তাহের এ দিনটিতেও পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্টের কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিনও পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ফলো করে ট্রেড করুন। ০৯ই অক্টোবর বৃহস্পতিবার – সপ্তাহের এই দিনটিতে পেয়ারটির মেজর কারেন্সি USD তে দুটি ও EUR কারেন্সিতে ১টি হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ রয়েছে এবং এ তিনটি নিউজই উক্ত পেয়ারটির এ সপ্তাহের নিউজ, এছাড়া এ সপ্তাহে পেয়ারটিতে আর কোনো হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ নেই, তাই এ দিন পেয়ারটি ট্রেডেবল হয়ে উঠবে কারণ এ দিন USD এর FOMC Meeting Minutes ও EUR এর ECB President Draghi Speaks দুটি রয়েছে তাই এ সপ্তাহের এ দিনে পেয়ারটি যে কোনো দিকে বিশাল মুবমেন্ট ঘটাতে পারে। তাই এ দিন উক্ত পেয়ারটিতে নিউজ বুঝে সাবধানে ট্রেড করুন। রাত ১২.০০মিনিট USD FOMC Meeting Minutes সন্ধ্যা ৬.০০মিনিট USD Unemployment Claims রাত ৯.০০মিনিট EUR ECB President Draghi Speaks ১০ই অক্টোবর শুক্রবার – মার্কেট ক্লোজিং এর এ দিনে পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্টের কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিনও পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ফলো করে ট্রেড করুন। বন্ধুরা, উপরোক্ত নিউজগুলো দেখেই এতক্ষণে বুঝতে পারছেন যে, এ সপ্তাহে পেয়ারটি উভয় কারেন্সিতে শুধুমাত্র তিনটি হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ রয়েছে, তাই আশা করি এ সপ্তাহে পেয়ারটির মার্কেট নিউজ পাবলিশ এর দিন ছাড়া অন্য দিনগুলোতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিসমতে চলবে, এবং উক্ত নিউজগুলো পাবলিশ এর দিন পেয়ারটি যেকোনো দিকে ভালো একটি মুবমেন্ট ঘটাবে। তাই এ সপ্তাহে পেয়ারটিতে ট্রেড করার জন্য টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস এর উপর গুরুত্ব দিন শুধুমাত্র নিউজ পাবলিশ এর দিন নিউজ ফলো করুন। এ সপ্তাহে আপনি উক্ত পেয়ারটিতে যেভাবে ট্রেড করবেনঃ সাধারন নিয়মে পেয়ারটির মার্কেট মূল্য ১.২৫৬৬ ক্রস করলে বাই ট্রেড করুন স্টপ লস ১.২৫১০ আর টেক প্রফিট দিন ৭০-১০০ পিপ্স এবং পেয়ারটির মার্কেট মুল্য যদি প্রথম সাপোর্ট ১.২৪৯৬ ক্রস করে তাহলে সেল ট্রেড করুন আর এক্ষেত্রে টেক প্রফিট ৮০-১২০পিপ্স দিন এবং স্টপ লস দিন ১.২৫৬৫। আর যদি মার্কেট ওপেন হওয়ার পর পেয়ারটি বাই এ যায় তাহলে ১.২৬০০-১.২৬৩০ এর মধ্যে সেল ট্রেড করুন এক্ষেত্রে স্টপ লস দিন ১.২৬৭০ এবং টেক প্রফিট দিন ৭০-৯০পিপ্স। আর পেয়ারটির মার্কেট মূল্য যদি সেল এ যায় তাহলে ১.২৪১০-১.২৩৮০ এর মধ্যে বাই ট্রেড করুন এক্ষেত্রে স্টপ লস দিন ১.২৩৫০ এবং টেক প্রফিট দিন ৮০-১১০পিপ্স। উপরোক্ত ট্রেডগুলোর টেক প্রফিট ও স্টপলস আপনি চাইলে আপনার মত করে দিতে পারেন। তবে স্টপলস এর ক্ষেত্রে অবশ্যই সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স দেখে দিন। উপরোক্ত যে কোনো অর্ডার মেক করার পর যদি দেখেন যে আপনার ট্রেড প্রফিটে আছে কিন্তু নিউজ আপনার ট্রেড এর বিপরীতে তাহলে ঐই ট্রেডটি ক্লোজ করে দিবেন। ট্রেড এ উপস্থিত না থাকলে একটির বেশী পেন্ডিং অর্ডার দিবেন না। যদি আপনার একটি অর্ডার নিয়ে নেয় তাহলে সে অর্ডারটি ক্লোজ না করে আরেকটি অর্ডার দিবেন না। বিশেষ করে বাই সেল করে ট্রেড লক করবেন না। আর যারা স্ক্যাল্পিং করেন তারা আশা করি পেয়ারটিতে এ সপ্তাহে ভালো করতে পারবেন তবে এজন্য উভয় কারেন্সির নিউজগুলোর উপর অবশ্যই চোখ রাখবেন আর অবশ্যই ট্রেন্ড ফলো করবেন। হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আওয়ার এ দেখে ও বুঝে ট্রেড করবেন। এই এ্যনালাইসিস সাপ্তাহিক ট্রেডাররা ফলো করলে ভালো, তবে ডেইলি ট্রেডাররা লট সাইজ আনুপাতিক হারে কমিয়ে করতে পারেন। ধন্যবাদ। বিঃ দ্রঃ ফরেন এক্সচেঞ্জ একটি হাই রিস্ক লেভেল ট্রেডিং মার্কেট যা সকল ইনভেস্টর বা ট্রেডারদের জন্য যথাযোগ্য নয়। কারেন্সি ট্রেডিং এ ট্রেডারদের ট্রেড এর যে কোনরূপ পরিবর্তন ট্রেডাররা নিজ দায়িত্বে বহন করবে। সে জন্য বিডিফরেক্সপ্রো কোনো প্রকার দায়ী থাকিবে না।
  2. EURUSD মার্কেট আউটলুক জুলাই ২১ থেকে ২৫ পর্যন্ত। বন্ধুরা, পেয়ারটির মার্কেট গত সপ্তাহে ১.৩৫০২ সাপোর্ট ক্রস করে তার (দৈনিক চার্টে) মার্কেট ট্রেন্ড ব্রেক করে ১.৩৪৯০ পর্যন্ত সেল এ আসে এবং ১.৩৫২৩ এ মার্কেট ক্লোজ করে। যেহেতু পেয়ারটি তার দৈনিক চার্টের ১.৩৫০২ সাপোর্ট ক্রস করেছে এবং বর্তমানে বেশীরভাগ ইন্ডিকেটর ও পেয়ারটির মার্কেট ট্রেন্ড সেল দেখাচ্ছে, তাই টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ভিউ থেকে বলা যায় পেয়ারটি এ সপ্তাহে আরো সেলে যাবে। এ সপ্তাহের জন্য পেয়ারটির সাপোর্ট ধরা যায় ১.৩৪৭৬ ও ১.৩৪০০ এবং রেসিস্টেন্স হিসেবে ১.৩৫৭৫ ও ১.৩৭২০ কে, তবে এ্যকচুয়্যাল নিউজ এসব সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্সকে অনেক সময় কোনো তোয়াক্কাই করে না। যাইহোক, মার্কেট এ পরিস্থিতি থেকে বাই এ মোড় নেওয়ার জন্য ১.৩৫৭৬ রেসিস্টেন্স এবং সেল এ যাওয়ার জন্য ১.৩৫০২ সাপোর্ট মুল্য ক্রস করতে হবে, যদিও দৈনিক চার্টে পেয়ারটির ট্রেন্ড ১.৩৫০২ সাপোর্ট ক্রস করে বর্তমানে ১.৩৫২৩ মুল্যে সেল এর দিকে তবে সেটা অতটা স্ট্রং নয়। তাই এ সপ্তাহে পেয়ারটির ঊর্ধ্ব বা নিম্ন গতির ভাগ্য নির্ভর করবে EUR এর French Flash Manufacturing PMI, German Flash Manufacturing PMI, German Ifo Business Climate এবং USD এর যাবতীয় নিউজগুলোর উপর আর যদি উক্ত পেয়ারটির USD কারেন্সির বেশীরভাগ নিউজ পজিটিভ হয় এবং EUR কারেন্সির নিউজগুলো নেগেটিভ বা দুর্বল হয় তাহলে এ সপ্তাহে পেয়ারটি নিশ্চিত সেল এ-ই থাকবে। আপনাদের যাতে এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে ট্রেড করতে সুবিধা হয় সেজন্য চিত্রের সাহায্যে পেয়ারটির সাপোর্ট, রেসিস্টেন্স, মার্কেট ট্রেন্ড ও ট্রেড আইডিয়া শেয়ার করলাম। দৈনিক চার্টে মার্কেট ট্রেন্ডঃ সাপোর্ট রেসিসটেন্স ও ট্রেড আইডিয়া চিত্রঃ উপরোক্ত চিত্রেঃ সম্পূর্ণ চার্ট আয়ত্তে না আসায় সকল সাপোর্টসমুহ গ্রাফের সাহায্যে দেখানো সম্ভব হয়নি। রেসিসটেন্স সমুহঃ ১.৩৫৪৭, ১.৩৫৮৭, ১.৩৬১৬, ১.৩৬৭৭ ও স্ট্রং রেসিসটেন্স ১.৩৭৩৮। সাপোর্ট সমুহঃ ১.৩৫০২, ১.৩৪৭৬, ১.৩৪৪৯, ১.৩৪০০, ১.৩৩৫৩ ও স্ট্রং সাপোর্ট ১.৩৩২৪। এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্ট যে নিউজগুলো আছে তা নিম্নরুপঃ ২১ই জুলাই সোমবার – মার্কেট ওপেনের এই দিনে উক্ত পেয়ারটির কোনো কারেন্সিতে হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ নেই। সুতারাং এ দিন আপনারা সাবধানে ট্রেড করবেন। ২২ই জুলাই মঙ্গলবার – মার্কেট ওপেনের দ্বিতীয় দিনে উক্ত পেয়ারের শুধুমাত্র USD কারন্সিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর দুটি নিউজই আছে যার মধ্যে Existing Home Sales নিউজটি অত্যাধিক গুরুত্বপূর্ণ, তাই আমরা অনুমান করতে পারি যে, যদি USD কারেন্সির দুটি নিউজই পজিটিভ হয় তাহলে EURUSD পেয়ারটি এ দিন সেল থাকবে এবং ট্রেডেবল হবে। সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Core CPI m/m রাত ৮.০০মিনিট USD Existing Home Sales ২৩ই জুলাই বুধবার – এ দিন উক্ত পেয়ারে হাই ইমপ্যাক্ট নিউজের সংখ্যা শূন্য। সুতারাং এ দিন টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ফলো করে ছোট ছোট ট্রেড করতে পারেন, তবে ট্রেন্ড যেদিকে থাকবে সেদিকে এবং সাবধানে। ২৪ই জুলাই বৃহস্পতিবার – সপ্তাহের এই দিনটিতে EURUSD পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট নিউজের সংখ্যা বেশী এবং এ সপ্তাহের জন্য EUR এর যে নিউজগুলো হাই ভোল্টেজের ধরা হয় সেগুলোও এ দিনই রিলিজ হবে, অপরদিকে USD এর নিউজগুলোও এ দিন মার্কেটে বেশ ভালো প্রভাব রাখবে বলে মনে হয়। তাই এ দিন উক্ত পেয়ারটিতে উভয় পেয়ারের নিউজ থাকায় হয়তো পেয়ারটিতে এ দিন স্ক্যাল্পিং টাপের মুবমেন্ট হবে নতুবা যে কোনো একদিকে ছুটবে। তবে যাই বলি এ দিন পেয়ারটি ট্রেডেবল থাকবে। দুপুর ১.০০মিনিট EUR French Flash Manufacturing PMI দুপুর ১.৩০মিনিট EUR German Flash Manufacturing PMI সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Unemployment Claims রাত ৮.০০মিনিট USD New Home Sales ২৫ই জুলাই শুক্রবার – মার্কেট ক্লোজিং এর এ দিনে EUR এবং USD এর নিউজ দুটি পেয়ারটিকে চাঙ্গা রাখবে বলে আশা করা যায়, তবে এ সবই নির্ভর করবে এ্যাকচুয়্যল নিউজের উপর। আর এর আগের দিন যেহেতু অনেকগুলো হাই ইমপ্যাক্টের নিউজ ছিল তাই মার্কেট ক্লোজিং ডে হিসেবে আগের দিনের নিউজের রেশ থাকলে এ দিনেও পেয়ারটিতে ভালো একটা মুবমেন্ট হতে পারে। দুপুর ২.০০মিনিট EUR German Ifo Business Climate সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Core Durable Goods Orders m/m যেহেতু এ সপ্তাহে পেয়ারটিতে EUR এর থেকে USD কারেন্সির নিউজের পরিমান বেশী এবং পেয়ারটির মার্কেট ট্রেন্ডও বর্তমানে সেল এ, তাহলে আমরা ন্যাচারেলি ধরে নিতে পারি যে উক্ত পেয়ারটির মার্কেট এ সপ্তাহে সেল এ থাকার সম্ভাবনা আছে, তবে সে জন্য USD কারেন্সির নিউজগুলো অবশ্যই পজিটিভ হতে হবে। যাইহোক এ সপ্তাহে পেয়ারটির ভাগ্য বেশীরভাগ নির্ভর করবে USD কারেন্সির নিউজগুলোর উপর। এ সপ্তাহে আপনি উক্ত পেয়ারটিতে যেভাবে ট্রেড করবেনঃ (১)পেয়ারটির মার্কেট মূল্য প্রথম সাপোর্ট ক্রস করলে ১.৩৫০০ এ সেল ট্রেড করুন এবং স্টপ লস ১.৩৫৫৩ টেক প্রফিট ৭০-৯০পিপ্স দিন। (২) মার্কেট ওপেন হওয়ার পর ১.৩৫১০-১.৩৫৩৫ এর মধ্যে বাই ট্রেড করুন স্টপ লস ১.৩৪৮৫ আর টেক প্রফিট দিন ৬০-৮০ পিপ্স। (৩) ১.৩৫৯০-১.৩৬২০ এর মধ্যে সেল ট্রেড এ এন্ট্রি দিন, এ ক্ষেত্রে স্টপ লস ১.৩৬৬০ এবং টেক প্রফিট দিন ৭০-১২০ পিপ্স। যদি আপনার একটি ট্রেড মার্কেটে থাকে তাহলে ওই ট্রেডটি ক্লোজ না করে আরেকটি ট্রেড ওপেন করবেন না যদি করে থাকেন তাহলে ট্রেড ভলিউম কমিয়ে/মানি ম্যানেজমেন্ট করে করুন। আর যারা স্ক্যাল্পিং করেন তারা আশা করি পেয়ারটিতে এ সপ্তাহে ভালো করতে পারবেন তবে ট্রেন্ড ও নিউজ বান্ধব স্ক্যাল্পিং করুন না হলে আপনি লসের সম্মুখীন হতে পারেন। ধন্যবাদ। বিঃ দ্রঃ ফরেন এক্সচেঞ্জ একটি হাই রিস্ক লেভেল ট্রেডিং মার্কেট যা সকল ইনভেস্টর বা ট্রেডারদের জন্য যথাযোগ্য নয়। কারেন্সি ট্রেডিং এ ট্রেডারদের ট্রেড এর যে কোনরূপ পরিবর্তন ট্রেডাররা নিজ দায়িত্বে বহন করবে। সে জন্য বিডিফরেক্সপ্রো কোনো প্রকার দায়ী থাকিবে না।