Bdforexpro.com will be sold with its all assets ! - (SEE DETAILS) Interested can Contact !

বিডিফরেক্সপ্রো' ফরেক্স সংক্রান্ত সব আলোচনা, মতামত এবং ফরেক্স শিক্ষা বিষয়ক এক উন্মক্ত এবং অনন্য স্থান। মান সম্মত আলোচনা, প্রতিনিয়ত গুরুত্তপুর্ন সব ট্রেডিং স্ট্রেটিজি এবং এনালাইসিসের মাধ্যমে সঠিক ট্রেডিং গাইডলাইন প্রদান বিডিফরেক্সপ্রো'র অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট। এই ফোরামে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ ফ্রী। পোস্ট এর পূর্বে অনুগ্রহ করে ফোরাম নিতিমালা গুলো পড়ে, বুঝে পোস্ট করুন। ধন্যবাদ;

Search the Community

Showing results for tags 'eurusd signal'.



More search options

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


  • সাধারণ ফরেক্স সহায়তা
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা, ট্রেডিং স্ট্রেটিজি, নিউজ এবং সিগন্যাল সম্পর্কিত
    • ফোরাম ও পোর্টাল সহায়তা
    • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • নিউজ, সিগনাল ও এনালাইসিস
    • প্রশ্ন ও উত্তর
    • ট্রেডিং স্ট্রেটিজি
    • ফরেক্স স্টাডি
  • ট্রেডিং সফটওয়্যার (প্লাটফর্ম-মেটা ট্রেডার)
    • টুলস, ইন্ডিকেটর
    • অটোসিস্টেম অ্যান্ড ট্রেডিং
    • মেটাট্রেডার, সি-ট্রেডার, ওয়েবট্রেডার
  • বিজ্ঞাপন
    • কমার্শিয়াল কন্টেন্ট
    • ক্রয়-বিক্রয়-এক্সচেঞ্জ
  • ফরেক্স ব্রোকার সম্পর্কিত
    • ফরেক্স ব্রোকার
    • ফরেক্স অফার
    • পেইমেন্ট মেথড
  • অফ-টপিক

Categories

  • সাধারণ ফরেক্স বই
  • টেকনিক্যাল এনালাইসিস
  • ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস
  • ক্যান্ডলেস্টিক এনালাইসিস
  • ইনডিকেটর

Group


ওয়েবসাইট URL


ইয়াহু(Yahoo)


স্কাইপ(Skype)


ঠিকানা


ইচ্ছা/আগ্রহ/শখ

Found 3 results

  1. EURUSD মার্কেট আউটলুক সেপ্টেম্বর ০৮ থেকে ১২ তারিখ পর্যন্ত। বন্ধুরা, ECB এর নিউজটি পাবলিশ এর পর পেয়ারটির মার্কেট বিগত সপ্তাহে নাটকীয়ভাবে নামতে থাকে যা অনেক ট্রেডারকেই বিপদের সম্মুখীন করেছে আবার অনেকে অধিক প্রফিট নিয়ে আনন্দে হয়তো সারা রাত ঘুমাতে পারেননি। পেয়ারটির মার্কেট বিগত সপ্তাহে মোট ২৪০পিপ্স এর মত সেল এ গেইন করে এবং ১.২৯৫০ এ সেল মুল্যে মার্কেট ক্লোজ করে। বর্তমানে সবধরনের চার্টে পেয়ারটির মার্কেট এখনো সেল ইন্ডিকেট করছে। যেহেতু পেয়ারটির মার্কেট এখনো সেল ইন্ডিকেট করছে তাই টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিসের দিকে ফলো করে ধারনা করা যে পেয়ারটি এ সপ্তাহেও সেলে-ই থাকবে তবে সেটা বেশীরভাগ নির্ভর করবে USD কারেন্সির নিউজগুলোর এ্যকচুয়্যাল রিপোর্ট এর উপর যেহেতু এ সপ্তাহে EUR কারেন্সির হাই ইমপ্যাক্ট কোনো নিউজ নেই, তবে EUR কারেন্সির মিডিয়াম ইমপ্যাক্ট এর দু-একটি নিউজ এ সপ্তাহে পেয়ারটি বাই এ যাওয়ার জন্য/কারেকশন করার জন্য সহযোগিতা করতে পারে যেমন, Trade balance figures, and industrial output numbers। তবে এ সপ্তাহের বাই/সেল ট্রেন্ড বেশীরভাগ নির্ভর করবে USD কারেন্সির নিউজগুলোর উপর। এ সপ্তাহের জন্য পেয়ারটির সর্বনিম্ন সাপোর্ট হিসেবে ধরা যায় যথাক্রমে ১.২৮০৫ ও ১.২৭৫০ এবং সরবোচ্চ রেসিস্টেন্স হিসেবে ১.৩০৪০ ও ১.৩১৭৬। যাইহোক, মার্কেট এ পরিস্থিতি থেকে এ সপ্তাহে বাই গেলে ১.২৯৯০-১.৩১৭৫ পর্যন্ত এবং সেল এ যাওয়ার জন্য ১.২৯২০ সাপোর্ট মুল্য ক্রস করলে ১.২৮৪০-১.২৭৫০ পর্যন্ত যেতে পারে। যদি উক্ত পেয়ারটির USD কারেন্সির বেশীরভাগ নিউজ পজিটিভ হয় তাহলে এ সপ্তাহেও পেয়ারটি নিশ্চিত সেলে-ই থাকবে। তবে সেটা অধিকাংশ নির্ভর করবে নিউজের এ্যকচুয়্যাল রিপোর্টের উপর। আপনাদের যাতে এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে ট্রেড করতে সুবিধা হয় সেজন্য চিত্রের সাহায্যে পেয়ারটির সাপোর্ট, রেসিস্টেন্স, মার্কেট ট্রেন্ড ও ট্রেড আইডিয়া শেয়ার করলাম। দৈনিক চার্টে মার্কেট ট্রেন্ডঃ সাপোর্ট রেসিসটেন্স ও ট্রেড আইডিয়া চিত্রঃ উপরোক্ত চিত্রেঃ সম্পূর্ণ চার্ট আয়ত্তে না আসায় সকল সাপোর্টসমূহ গ্রাফের সাহায্যে দেখানো সম্ভব হয়নি। পিভট পয়েন্টঃ ১.৩০০৬। রেসিসটেন্স সমুহঃ ১.২৯৮৭, ১.৩০৩৭, ১.৩০৯৫, ১.৩১৩২ ও স্ট্রং রেসিসটেন্স ১.৩১৭৬। সাপোর্ট সমুহঃ ১.২৯২০, ১.২৮৮০, ১.২৮৪০, ১.২৮০৪, ১.২৭৫০ ও স্ট্রং সাপোর্ট ১.২৬৬০। এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্ট যে নিউজগুলো আছে তা নিম্নরুপঃ ০৮ই সেপ্টেম্বর সোমবার – মার্কেট ওপেনের এই দিনে পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিন পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস দেখে বুঝে ট্রেড করুন। ০৯ই সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার – মার্কেট ওপেনের দ্বিতীয় দিনেও পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিনও পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস দেখে বুঝে ট্রেড করুন। ১০ই সেপ্টেম্বর বুধবার – এ দিনও পেয়ারটিতে হাই ইমপ্যাক্ট এর কোনো নিউজ নেই, তাই এ দিনও পেয়ারটিতে টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস দেখে বুঝে ট্রেড করুন। ১১ই সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার – এ মার্কেট ওপেনের চতুর্থ দিনে পেয়ারটির USD কারেন্সিতে একটিমাত্র নিউজ রয়েছে যা পেয়ারটির মার্কেটের মুবমেন্ট কিছুটা পরিবর্তন করতে পারে। সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Unemployment Claims ১২ই সেপ্টেম্বর শুক্রবার – মার্কেট ক্লোজিং এর এ দিনে উক্ত পেয়ারটির USD কারেন্সিতে কয়েকটি নিউজ রয়েছে। তাই এ দিন পেয়ারটি ট্রেডেবল থাকবে আর যদি USD কারেন্সির নিউজগুলোর এ্যকচুয়্যাল রিপোর্ট ভাল হয় তাহলে পেয়ারটির ট্রেন্ড এ সপ্তাহেও সেলে-ই থাকবে। তাই মার্কেট ক্লোজিং এর এ দিনে নিউজ বুঝে পেয়ারটিতে সাবধানে ট্রেড করুন। সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Core Retail Sales m/m সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Retail Sales m/m সন্ধ্যা ৭.৫৫মিনিট USD Prelim UoM Consumer Sentiment বন্ধুরা, উপরোক্ত নিউজগুলো দেখেই এতক্ষণে বুঝতে পারছেন যে, এ সপ্তাহে পেয়ারটি EUR কারেন্সিতে কোনো হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ নেই এবং অপর কারেন্সি USD তে ও Unemployment Claims নিউজটি ছাড়া তেমন ভাল কোনো নিউজ নেই তাই এ সপ্তাহটি পেয়ারটিতে মুবমেন্ট কম হতে পারে। তবে আমার মনে হয় পেয়ারটি এ সপ্তাহেও তার ট্রেন্ড সেলে-ই ধরে রাখবে। এ সপ্তাহে আপনি উক্ত পেয়ারটিতে যেভাবে ট্রেড করবেনঃ সাধারন নিয়মে পেয়ারটির মার্কেট মূল্য ১.২৯৫৫ ক্রস করলে ১.২৯৭০ এ বাই ট্রেড করুন স্টপ লস ১.২৯৩৫ আর টেক প্রফিট দিন ৫০-৮০ পিপ্স এবং পেয়ারটির মার্কেট মুল্য যদি প্রথম সাপোর্ট ১.২৯২০ ক্রস করে তাহলে সেল ট্রেড করুন আর এক্ষেত্রে টেক প্রফিট ৬০-৮০পিপ্স দিন এবং স্টপ লস দিন ১.২৯৬৫। আর যদি মার্কেট ওপেন হওয়ার পর পেয়ারটি বাই এ যায় তাহলে ১.৩০৪০-১.৩০৬০ এর মধ্যে সেল ট্রেড করুন এক্ষেত্রে স্টপ লস দিন ১.৩০৯০ এবং টেক প্রফিট দিন ৫০-৭০পিপ্স। আর পেয়ারটির মার্কেট মূল্য যদি সেল এ যায় তাহলে ১.২৮০০-১.২৮৪০ এর মধ্যে বাই ট্রেড করুন এক্ষেত্রে স্টপ লস দিন ১.২৮৮০ এবং টেক প্রফিট দিন ৭০-১১০পিপ্স। উপরোক্ত ট্রেডগুলোর টেক প্রফিট ও স্টপলস আপনি চাইলে আপনার মত করে দিতে পারেন। তবে স্টপলস এর ক্ষেত্রে অবশ্যই সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স দেখে দিন। উপরোক্ত যে কোনো অর্ডার মেক করার পর যদি দেখেন যে আপনার ট্রেড প্রফিটে আছে কিন্তু নিউজ আপনার ট্রেড এর বিপরীতে তাহলে ঐই ট্রেডটি ক্লোজ করে দিবেন। ট্রেড এ উপস্থিত না থাকলে একটির বেশী পেন্ডিং অর্ডার দিবেন না। যদি আপনার একটি অর্ডার নিয়ে নেয় তাহলে সে অর্ডারটি ক্লোজ না করে আরেকটি অর্ডার দিবেন না। বিশেষ করে বাই সেল করে ট্রেড লক করবেন না। আর যারা স্ক্যাল্পিং করেন তারা আশা করি পেয়ারটিতে এ সপ্তাহে ভালো করতে পারবেন তবে এজন্য অবশ্যই ট্রেন্ড এবং নিউজ ফলো করবেন। হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আওয়ার এ দেখে ও বুঝে ট্রেড করবেন। এই এ্যনালাইসিস সাপ্তাহিক ট্রেডাররা ফলো করলে ভালো, তবে ডেইলি ট্রেডাররা লট সাইজ আনুপাতিক হারে কমিয়ে করতে পারেন। ধন্যবাদ। বিঃ দ্রঃ ফরেন এক্সচেঞ্জ একটি হাই রিস্ক লেভেল ট্রেডিং মার্কেট যা সকল ইনভেস্টর বা ট্রেডারদের জন্য যথাযোগ্য নয়। কারেন্সি ট্রেডিং এ ট্রেডারদের ট্রেড এর যে কোনরূপ পরিবর্তন ট্রেডাররা নিজ দায়িত্বে বহন করবে। সে জন্য বিডিফরেক্সপ্রো কোনো প্রকার দায়ী থাকিবে না।
  2. EURUSD মার্কেট আউটলুক জুলাই ২৮ থেকে আগস্ট ০১ পর্যন্ত। বন্ধুরা, পেয়ারটির মার্কেট গত সপ্তাহে ১.৩৪২৭ মুল্যে ক্লোজ করে এবং দৈনিক চার্টে এখনো সেল ইন্ডিকেট করছে। যেহেতু পেয়ারটি গত সপ্তাহের আগের সপ্তাহে তার দৈনিক চার্টের ১.৩৫০২ সাপোর্ট ক্রস করেছে এবং বর্তমানে বেশীরভাগ ইন্ডিকেটর ও পেয়ারটির মার্কেট ট্রেন্ড সেল দেখাচ্ছে, তাই টেকনিক্যাল এ্যনালাইসিস ভিউ থেকে বলা যায় পেয়ারটি এ সপ্তাহে আরো সেলে যাবে। এ সপ্তাহের জন্য পেয়ারটির সাপোর্ট ধরা যায় ১.৩৩২৫ ও ১.৩২৯৫ এবং রেসিস্টেন্স হিসেবে ১.৩৪৯৪ ও ১.৩৫৮৬। যাইহোক, মার্কেট এ পরিস্থিতি থেকে বাই এ মোড় নেওয়ার জন্য ১.৩৫০২ রেসিস্টেন্স এবং সেল এ যাওয়ার জন্য ১.৩৩৯৯ সাপোর্ট মুল্য ক্রস করতে হবে, যদিও দৈনিক চার্টে পেয়ারটির ট্রেন্ড বর্তমানে ১.৩৫২৭ মুল্যে সেল এর দিকে তবে সেটা অতটা স্ট্রং নয়। তাই এ সপ্তাহে পেয়ারটির ঊর্ধ্ব বা নিম্ন গতির ভাগ্য নির্ভর করবে EUR এর German Prelim CPI m/m, CPI Flash Estimate y/y এবং USD এর যাবতীয় নিউজগুলোর উপর আর যদি উক্ত পেয়ারটির USD কারেন্সির বেশীরভাগ নিউজ পজিটিভ হয় তাহলে এ সপ্তাহেও পেয়ারটি নিশ্চিত সেল এ-ই থাকবে। তবে সেটা অধিকাংশ নির্ভর করবে USD এর FOMC Statement নিউজটির উপর। আপনাদের যাতে এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে ট্রেড করতে সুবিধা হয় সেজন্য চিত্রের সাহায্যে পেয়ারটির সাপোর্ট, রেসিস্টেন্স, মার্কেট ট্রেন্ড ও ট্রেড আইডিয়া শেয়ার করলাম। দৈনিক চার্টে মার্কেট ট্রেন্ডঃ সাপোর্ট রেসিসটেন্স ও ট্রেড আইডিয়া চিত্রঃ পিভট পয়েন্টঃ ১.৩৪৩২ রেসিসটেন্স সমুহঃ ১.৩৪৫০, ১.৩৪৯৪, ১.৩৫৪৮, ১.৩৫৮৬, ১.৩৬৫০ ও স্ট্রং রেসিসটেন্স ১.৩৭৩৮। সাপোর্ট সমুহঃ ১.৩৩৯৯, ১.৩৩৫৮, ১.৩৩২৫, ১.৩২৯৫, ১.৩২৫৫ ও স্ট্রং সাপোর্ট ১.৩২৩০। এ সপ্তাহে উক্ত পেয়ারটিতে হাই ইম্প্যাক্ট যে নিউজগুলো আছে তা নিম্নরুপঃ ২৮ই জুলাই সোমবার – মার্কেট ওপেনের এই দিনে USD এর একটি হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ ছাড়া তেমন কোনো নিউজ নেই। সুতারাং এ দিন উক্ত পেয়ারটি ট্রেডেবল থাকার সম্ভাবনা আছে। তবে এ দিন সন্ধ্যার আগে বিশেষ করে USD এর নিউজটি পাবলিশ হওয়ার আগে উক্ত পেয়ারে ট্রেড করা থেকে বিরত থাকাই ভালো। রাত ৮.০০মিনিট USD Pending Home Sales m/m ২৯ই জুলাই মঙ্গলবার – মার্কেট ওপেনের দ্বিতীয় দিনেও শুধুমাত্র USD কারেন্সির একমাত্র নিউজটিই উক্ত পেয়ারের মার্কেট মুবমেন্টের একমাত্র ভরসা। রাত ৮.০০মিনিট USD Existing CB Consumer Confidence ৩০ই জুলাই বুধবার – এ দিন হয়তো এ পেয়ারটির মার্কেট ভালো মুবমেন্ট করতে পারে। কারণ এ দিন USD ও EUR দুটি কারেন্সিতে হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আছে। এতে EURUSD পেয়ারটি এ দিন ট্রেডেবল থাকার সম্ভাবনা বেশী এবং এ দিন পেয়ারটির মার্কেটে ভালো স্ক্যাল্পিংও করা যেতে পারে। দুপুর ১২.০০মিনিট EUR German Prelim CPI m/m সন্ধ্যা ৬.১৫মিনিট USD ADP Non-Farm Employment Change সন্ধ্যা ৬.১৫মিনিট USD Advance GDP q/q ৩১ই জুলাই বৃহস্পতিবার – সপ্তাহের এই দিনটিতে পেয়ারটির দুটি কারেন্সিতেই হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আছে। তাই এ দিন পেয়ারটি ট্রেডেবল থাকার সম্ভাবনা খুব বেশী। বিশেষ করে USD এর FOMC Statement নিউজটি যদি মার্কেট বান্ধব হয় তাহলে পেয়ারটি ভালো মুবমেন্ট ঘটাতে পারে। রাত ১২.০০মিনিট( AM) USD FOMC Statement দুপুর ৩.০০মিনিট EUR CPI Flash Estimate y/y সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Unemployment Claims ০১লা আগস্ট শুক্রবার – মার্কেট ক্লোজিং এর এ দিনে USD এর নিউজগুলো EURUSD পেয়ারটিকে চাঙ্গা করে তুলতে পারে, যেহেতু এ দিন EUR এর কোনো নিউজ নেই তাই USD কারেন্সির নিউজগুলো পজেটিভ হলে এ দিন পেয়ারটি সেল এ থাকাটা স্বাভাবিক। সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Non-Farm Employment Change সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Unemployment Rate রাত ৮.০০মিনিট USD ISM Manufacturing PMI যেহেতু এ সপ্তাহে পেয়ারটিতে EUR এর থেকে USD কারেন্সির নিউজের পরিমান বেশী এবং পেয়ারটির মার্কেট ট্রেন্ডও বর্তমানে সেল এ, তাহলে আমরা ন্যাচারেলি ধরে নিতে পারি যে উক্ত পেয়ারটির মার্কেট এ সপ্তাহে সেল এ থাকার সম্ভাবনা আছে, তবে সে জন্য USD কারেন্সির নিউজগুলো অবশ্যই পজিটিভ হতে হবে। যাইহোক এ সপ্তাহে পেয়ারটির ভাগ্য বেশীরভাগ নির্ভর করবে USD কারেন্সির নিউজগুলোর উপর। এ সপ্তাহে আপনি উক্ত পেয়ারটিতে যেভাবে ট্রেড করবেনঃ (১)মার্কেট ওপেন হওয়ার পর পেয়ারটির মার্কেট মূল্য ১.৩৪২০ এ আসলে সেল ট্রেড করুন স্টপ লস ১.৩৪৫২ আর টেক প্রফিট দিন ৫০-৮০ পিপ্স। (২) পেয়ারটির মার্কেট মূল্য ১.৩৪৭০-১.৩৪৯৫ এর মধ্যে সেল ট্রেড করুন এবং স্টপ লস ১.৩৫৩০ টেক প্রফিট ৮০-১৩০পিপ্স দিন। (৩) ১.৩৩৪০-১.৩৩৭০ এর মধ্যে বাই ট্রেড এ এন্ট্রি দিন, এ ক্ষেত্রে স্টপ লস ১.৩৩২০ এবং টেক প্রফিট দিন ৮০-১২০ পিপ্স। যদি আপনার একটি ট্রেড মার্কেটে থাকে তাহলে ওই ট্রেডটি ক্লোজ না করে আরেকটি ট্রেড ওপেন করবেন না যদি করে থাকেন তাহলে ট্রেড ভলিউম কমিয়ে/মানি ম্যানেজমেন্ট করে করুন। আর যারা স্ক্যাল্পিং করেন তারা আশা করি পেয়ারটিতে এ সপ্তাহে ভালো করতে পারবেন তবে ট্রেন্ড ও নিউজ বান্ধব স্ক্যাল্পিং করুন, না হয় আপনি লসের সম্মুখীন হতে পারেন এবং এ সপ্তাহের ৩১ই জুলাই বৃহস্পতিবার রাত ১২.০০মিনিট( AM) USD এর FOMC Statement নিউটির উপর অবশ্যই নজর রাখবেন। আরেকটি কথা সবাই মনে রাখবেন, এ সপ্তাহে যেহেতু পবিত্র ঈদ-উল ফিতর তাই সবাই সাবধানে ট্রেড করবেন। ধন্যবাদ। বিঃ দ্রঃ ফরেন এক্সচেঞ্জ একটি হাই রিস্ক লেভেল ট্রেডিং মার্কেট যা সকল ইনভেস্টর বা ট্রেডারদের জন্য যথাযোগ্য নয়। কারেন্সি ট্রেডিং এ ট্রেডারদের ট্রেড এর যে কোনরূপ পরিবর্তন ট্রেডাররা নিজ দায়িত্বে বহন করবে। সে জন্য বিডিফরেক্সপ্রো কোনো প্রকার দায়ী থাকিবে না।
  3. বন্ধুরা, EURUSD পেয়ারটি গত সপ্তাহে ১.৩৫০০ সাপোর্ট লেভেল টাচ করে ১.৩৫৩৯ রেট এ লসে মার্কেট ক্লোজ করে। চার ঘন্টা ও ডেইলি চার্ট এ প্রাইস প্যাটার্ন এখনো বেয়ারিশ ইন্ডিকেট করছে হয়তোবা বাই এ কিছুটা কারেকশন করে এ সপ্তাহেও সেলে মোড় নিবে, কারণ এ সপ্তাহে EUR এর তেমন কোনো নিউজ নেই অপরদিকে USD এর বেশ কিছু হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আছে যেগুলোর মধ্যে FOMC, Unemployment Claims ও Building Permits নিউজগুলো খুবই ইপেক্টিব। তবেএ সপ্তাহে EUR এর একমাত্র হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ German ZEW Economic Sentiment নিউজটি বাই ট্রেড এর জন্য সুফল বয়ে আনতে পারে। এ সপ্তাহে পেয়ারটির সাপোর্ট হিসেবে ১.৩৪২০ থেকে ১.৩২৯৬ এবং রেসিস্টেন্স হিসেবে প্রথমে ১.৩৬১৫ ও মেজর রেসিস্টেন্স হিসেবে পূর্বের সুইং টপ বা বিগত তিন মাসের এভারেজ রেসিস্টেন্স ১.৩৭৪০ কে ধরা যায়। যেহেতু এ সপ্তাহে EUR এর কোনো হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ নেই সেজন্য উক্ত পেয়ারে ট্রেড করার জন্য এ সপ্তাহে USD এর নিউজ এবং টেকনিক্যাল এনালাইসিস ফলো করা উচিৎ। এ সপ্তাহে EURUSD পেয়ার এ যেন ট্রেড করতে আপনাদের সুবিধা হয় সে জন্য চিত্রের সাহায্যে উক্ত পেয়ারটির মার্কেট ট্রেন্ড, সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্সগুলো জেনে নিন এবং ছোট্ট একটা ট্রেড আইডিয়া দেখে নিনঃ EUR/USD পেয়ারটির ৪ঘন্টা ও দৈনিক চার্টের ট্রেন্ড চিত্রঃ EUR/USD পেয়ারটির সাপোর্ট, রেসিস্টেন্স ও ট্রেড আইডিয়া চিত্রঃ উপরোক্ত চিত্রে সাপোর্ট ও রেসিস্টেন্স সমুহঃ রেসিস্টেন্স সমুহঃ ১.৩৫৮৭, ১.৩৬৫০, ১.৩৭৩৫, ১.৩৭৭৮ ও স্ট্রং রেসিস্টেন্স ১.৩৮৫০। সাপোর্ট সমুহঃ ১.৩৫০২, ১.৩৪৪৬, ১.৩৪১৩, ১.৩৩৫৬, ১.৩২৯৪ ও স্ট্রং সাপোর্ট ১.৩২০৫। EUR-USD পেয়ার এর এ সপ্তাহে হাই ইমপ্যাক্ট যে নিউজগুলো আছে তা নিম্নরুপঃ ১৭ জুন মঙ্গলবার – এই দিন EUR এর এ সপ্তাহের একমাত্র নিউজটি আছে। দুপুর ৩.০০মিনিট EUR German ZEW Economic Sentiment সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Building Permits সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Core CPI m/m ১৮ই জুন বুধবার – এই পেয়ারটির কোনো নিউজ নেই। ১৯ই জুন বৃহস্পতিবার – বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতেই এই পেয়ারটিতে মেজর একটি মুবমেন্ট হয়ে যেতে পারে, তাই সবাই এই দিন সাবধান এবং সজাগ থাকার চেষ্টা করবেন। কারণ ঐই সময় অন্য কোন নিউজ নয় FOMC এর কয়েকটি নিউজ আছে আর এটা সবাই জানেন যে FOMC এর নিউজ মানেই ১০০থেকে১৫০পিপ্স এর পরিবর্তন। রাত ১২.০০মিনিট(AM) USD FOMC Economic Projections রাত ১২.০০মিনিট(AM) USD FOMC Statement রাত ১২.৩০মিনিট(AM) USD FOMC Press Conference সন্ধ্যা ৬.৩০মিনিট USD Unemployment Claims রাত ৮.০০মিনিট USD Philly Fed Manufacturing Index ২০ই জুন শুক্রবার – এই পেয়ারটির কোনো নিউজ নেই। EUR-USD পেয়ারটিতে এ সপ্তাহে যেভাবে ট্রেড করবেনঃ এ সপ্তাহে পেয়ারটি আশা করি আরো সেল এ যাবে তার আগে বাই এ কিছুটা কারেকশন হতে পারে। চিত্রমতে প্রথম সাপোর্ট লেবেল ক্রস করলে ১.৩৪৯০ তে সেল আর ১.৩৬১৫ এ বাই ট্রেড করুন, সাপোর্ট এবং রেসিস্টেন্স দেখে বা আপনি আপনার মত এ্যনালাইসিস করে স্টফ লস দিন এবং টেক প্রোফিট দিন ৮০ থেকে ১২০পিপ্স বা আপনি আপনার মত করে দিন। আর যারা স্ক্যাল্পিং করেন তারা অবশ্যই ট্রেন্ড ফলো করবেন। হাই ইমপ্যাক্ট নিউজ আওয়ার এ দেখে ও বুঝে ট্রেড করুন। এই এ্যনালাইসিস সাপ্তাহিক ট্রেডাররা ফলো করলে ভালো, তবে ডেইলি ট্রেডাররা লট সাইজ আনুপাতিক হারে কমিয়ে করতে পারেন। গুডলাক। ধন্যবাদ সবাইকে। বিঃ দ্রঃ ফরেন এক্সচেঞ্জ একটি হাই রিস্ক লেভেল ট্রেডিং মার্কেট যা সকল ইনভেস্টর বা ট্রেডারদের জন্য যথাযোগ্য নয়। কারেন্সি ট্রেডিং এ ট্রেডারদের ট্রেড এর যে কোনরূপ পরিবর্তন ট্রেডাররা নিজ দায়িত্বে বহন করবে। সে জন্য বিডিফরেক্সপ্রো কোনো প্রকার দায়ী থাকিবে না।