Jump to content
Create New...

মার্কিন স্টক মার্কেট: স্টক ক্রয় করার কারণ বা পরিস্থিতি কোনটাই নেই।


Recommended Posts

মার্কিন স্টক মার্কেট: স্টক ক্রয় করার কারণ বা পরিস্থিতি কোনটাই নেই।

1125163414.jpg
 
মার্কিন স্টক মার্কেটের প্রধান সূচকসমূহ অর্থাৎ ডাও জোন্স, নাসডাক এবং S&P 500 শুক্রবার আরেকবার রেকর্ড পতনের সাথে লেনদেন শেষ করেছে। নীতিগতভাবে, শুক্রবার মার্কিন স্টেটগুলোতে একটিও সত্যিকারের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ঘটেনি। হ্যাঁ, জেরোম পাওয়েলের বক্তৃতা দিয়েছেন, তবে পাওয়েল বুধবারও ফেড বৈঠকের ফলাফল ঘোষণার পরপরই বক্তৃতা দিয়েছিলেন। হ্যাঁ, শিল্প উৎপাদনের উপর একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল, কিন্তু এই প্রতিবেদনটি এখন বিনিয়োগকারীদের জন্য খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ নয় এবং এটি "চমকপ্রদ" এবং অপ্রত্যাশিত কোন তথ্য দিতে পারেনি। আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সোমবার ছুটির দিন থাকায় শেয়ারবাজারে কার্যক্রম হয়নি। সুতরাং, স্টক সূচক এবং স্টকের জন্য ট্রেডিং সপ্তাহ এখনও শুরু হয়নি।
এবং বিশ্বব্যাপী সংশোধনের অংশ হিসাবে স্টক মার্কেট একই স্থানীয় নিম্নস্তর থেকে শুরু হবে। যেমনটি আমরা একাধিকবার বলেছি, এখন ফান্ডামেন্টাল বা মৌলিক পটভূমি দেখে মনে হচ্ছে একটি বিশাল জাহাজ পূর্ণ গতিতে আটলান্টিক জুড়ে ছুটে চলেছে। না, গল্পটি আইসবার্গ এবং সংঘর্ষের নয়। গল্পটা হলো এই জাহাজ থামাতে, ঘুরতে বা গতিপথ পরিবর্তন করতে অনেক সময় লাগবে। ফেডের ব্যাপারেও একই কথা বলা যায়। নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি ইতিমধ্যেই ব্যাপকভাবে সুদের হার বাড়ানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, সুতরাং এরকম কোনদিন আসবে না যেদিন পাওয়েল ঘোষণা দিবেন যে ফেডের পরিকল্পনা পরিবর্তিত হয়েছে এবং সুদের হার আর বৃদ্ধি করা হবে না। ফলে, অন্তত 2022 সালের শেষ না হওয়া পর্যন্ত, আর্থিক নীতিমালা আরও কঠোর করা হবে। এবং সুদের হার বাড়ানোর পাশাপাশি, 1 জুলাই থেকে ফেডের ব্যালেন্স শীট মাসিক ভিত্তিতে $ 95 বিলিয়ন হ্রাস করা শুরু হবে। এর অর্থ হল অর্থনীতি থেকে অতিরিক্ত অর্থ সরবরাহ প্রত্যাহার করা হবে, যা আবার ঝুঁকিপূর্ণ সম্পদের জন্য খারাপ পরিস্থিতি বয়ে আনবে। কঠিন ভূ-রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং উচ্চ মুদ্রাস্ফীতির সময়ে সর্বপ্রথম ঝুঁকিপূর্ণ সম্পদের চাহিদা কমে যায়।
এবং এখন আমি মুদ্রাস্ফীতি সম্পর্কে কথা বলতে চাই না। যদি জুনের শেষের দিকে এই সূচক হ্রাস পেতে শুরু না করে, তবে সুদের হার কতটা বাড়ানো উচিত তা সাধারণত কল্পনা করা কঠিন। পরবর্তী মুদ্রাস্ফীতির প্রতিবেদন 13 জুলাই প্রকাশিত হবে এবং এই মুহুর্তে এই সূচকের জন্য কোন পূর্বাভাস নেই। গত দুই মাসে, আমরা বলতে পারি যে ভোক্তা মূল্য সূচক ত্বরান্বিত হওয়া বন্ধ হয়েছে, এবং ফেড ইতিমধ্যেই সুদের হার 1.75% এ নিয়ে গিয়েছে। সুতরাং, মূদ্রাস্ফীতির হারে মন্থরতার আশা করা যেতে পারে। কিন্তু মুদ্রাস্ফীতিকে 2%-এ আনার ফেডের পরিকল্পনা এখন অনেক দূরের পথ যেহেতু বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মুদ্রাস্ফীতির হার 8.6%। তাই সুদের হার বাড়বে এবং বাড়তেই থাকবে। আর নিয়ন্ত্রক সংস্থার এসব কর্মকাণ্ডের প্রতিক্রিয়ায় পুঁজিবাজারে আবারও পতন দেখা যেতে পারে।
 
 
 

বিস্তারিত

 

 

Link to comment
Share on other sites

টপিকটিতে মন্তব্য করতে সাইন ইন করুন অথবা নতুন একাউন্ট করুন

মন্তব্য করতে আপনাকে অবশ্যই মেম্বার হতে হবে

একাউন্ট করুন

খুব সহজে একাউন্ট করুন

নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন

সাইন ইন

ইতিমধ্যে একাউন্ট করেছেন ? সাইন ইন করুন

এখনি সাইন ইন করুন
 Share

×
×
  • Create New...
Search In
  • More options...
Find results that contain...
Find results in...

Write what you are looking for and press enter or click the search icon to begin your search